ক্যাটাগরি: প্রকাশনা | বইপত্র

বই পরিচিতি: বাংলাদেশের মাৎস্য সম্পদ

বাংলাদেশের মাৎস্য সম্পদ বইটির প্রচ্ছদ

বাংলাদেশের মাৎস্য সম্পদ বইটির প্রচ্ছদ


মোহাম্মদ শফি (চেয়ারম্যান ও প্রফেসর, একুয়াকালচার ও ফিসারিজ ডিপার্টমেন্ট, ঢাবি) এবং ড. মিয়া মুহম্মদ আবদুল কুদ্দুস (চেয়ারম্যান ও প্রফেসর, প্রাণিবিদ্যা বিভাগ, ঢাবি) রচিত “বাংলাদেশের মাৎস্য সম্পদ” শিরোনামের বইটিতে বাংলাদেশের ১৪৮ প্রজাতির মাছ, ৩০ প্রজাতির ইচা/চিংড়ি/লবস্টার, ১৫ প্রজাতির কাঁকড়া এবং ১৬ প্রজাতির কাছিম/কাইট্যা সহজ ভাষায় অত্যন্ত সুন্দরভাবে চিত্রসহ উপস্থাপন করা হয়েছে। বইটি ফিশারীজ ও প্রাণীবিদ্যা বিষয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থী ও গবেষকদের বাংলাদেশের মিঠা পানির মাৎস্য সম্পদ সম্পর্কে প্রজাতিভিত্তিক ধারণা তৈরি ও জ্ঞানার্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে বলে প্রত্যাশা করা যায়। বইটিতে প্রতিটি প্রজাতির স্থানীয় নাম, বৈজ্ঞানিক নাম, সনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য, শ্রেণীবিভাজনীয় সূত্র, অঙ্গসংস্থানিক বৈশিষ্ট্য, সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য, প্রকৃতি ও আবাস এবং সংগ্রহের উপকরণ অত্যন্ত বিস্তৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মাছ ও অন্যান্য মৎস্য প্রজাতির প্রজাতিভিত্তিক বর্ণনার পাশাপাশি তাদের জীবতত্ত্ব ও চাষবাসের বিভিন্ন পদ্ধতি নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে। বইটিতে দেশীয় মাছের সাথে সাথে এ দেশে পাওয়া যায় এরকম তিনটি প্রজাতির বর্ণনাও স্থান পেয়েছে। বইটিতে বর্ণিত বেশিরভাগ মৎস্য প্রজাতি স্বাদুপানির হলেও অনেক উপকূলীয় ও সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি/লবস্টার, কাঁকড়া ও কাছিমও তাতে স্থান পেয়েছে। বইটির শেষে সংযুক্ত গ্রন্থপঞ্জী, বইটিতে স্থান পাওয়া মাছের তালিকার সংযোজন বইটিকে করছে সমৃদ্ধ আর পাঠক বান্ধব।

বাংলাদেশের মৎস্য সম্পদ বইটির প্রথম প্রকাশ জ্যৈষ্ঠ ১৩৮৯ (জুন ১৯৮২), প্রকাশক বাংলা একাডেমী, ঢাকা। আর প্রথম কবির পাবলিকেশন্স সংস্করণ বৈশাখ ১৪০৮ (এপ্রিল ২০০১)। প্রকাশক মাহমুদ হাসান (বিপ্লব), স্বত্বাধিকারী, কবির পাবলিকেশন্স, ঢাকা। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন- শচীন্দ্রলাল বড়ুয়া। ৪৮৫ পৃষ্ঠার এই বইটির মূল্য বাংলাদেশী টাকা ২৫০ মাত্র।

বইটিতে নিম্নলিখিত মাছ ও অন্যান্য জলজপ্রাণীর বর্ণনা স্থান পেয়েছে –

মাছ:

  • বর্গ- Anguilliformes
    বাউ বাইম, বোরো বাইম
  • বর্গ- Clupeiformes
    পদ্মা ইলিশ, চন্দনা ইলিশ, গুর্তা ইলিশ, চাপিলা, আফিলা, কাচকী, মুখচোক্কা চাপিলা, খরচনা, ফ্যাঁসা, ফেওয়া
  • বর্গ- Osteoglossiformes
    চিতল, ফলি
  • বর্গ- Cypriniformes
    রুই, ঘনিয়া, কালিবাউশ, নানদিনা, মৃগেল, রায়েক, কাতলা, মহাশোল, কমন কার্প, সরপুঁটি, জাতিপুঁটি, চোলা পুঁটি, তিত পুঁটি, ফুটুনি পুঁটি, দেঁতো পুঁটি, কোসা পুঁটি, পুন্টি পুঁটি, দুকি পুঁটি, কাঞ্চন পুঁটি, জেলি পুঁটি, কোকসা, সাধু কোকসা, বোল, বোল কোকসা, টেলি কোকসা, জয়া, চেদ্রা কোকসা, মোলা, ঢেলা, পিয়ালী, পিয়াসী, টাটকেনী, নারকেলী চেলা, ফুলচেলা, গোরা চেলা, ছ্যাপ চেলা, পাতা চেলা, এলাং, ডানকিনা, বাঁশপাতা, ছেবলী, নিপাতী, কাপাতী, আঞ্জু, দাঁড়িকা, বেতি, বেতাঙ্গী, বালিচাটা, গুতুম, গুতে, গঙ্গাসাগর
  • বর্গ- Siluriformes
    গুজা আইর, তল্লা আইর, গোলসা টেংরা, টেংরা, গুলি টেংরা, গুলশা টেংরা, কাউনে, কালো বুজুরী, সাদা বুজুরী, ফুটকী বুজুরী, রিটা, গোগরা রিটা, বোয়াল, পাবদা, কানি পাবদা, ঘাউড়া, মুরি বাচা, বাতাসী, কাজলি, বাচা, সিলোন্দা, চ্যালেন্দা, পাংগাস, বাঘাইর, চেনুয়া, হেরা, গাঙটেংরা, মাগুর, শিং, গ্যানগেনিয়া
  • বর্গ- Beloniformes
    কাখলে, একথুটি
  • বর্গ- Cyprinodontiformes
    কানপোনা, নালিপোনা
  • বর্গ- Syngnathiformes
    ক্যারা কুমিরের খিল, কাটা কুমিরের খিল, কুনা কুমিরের খিল, চোকদি কুমিরের খিল
  • বর্গ- Channiformes
    গজার, শোল, টাকী, তেলোটাকী
  • বর্গ- Symbranchiformes
    কুঁচে
  • বর্গ- Perciformes
    নামা চান্দা, লাল চান্দা, কাঁটা চান্দা, টাকা চান্দা, পোয়া, ভেদা, নাপতে কই, কাল তেলাপিয়া, লাল নাইলোটিকা, তুণ্ড বেলে, ডোরা বেলে, সাধু বেলে, কালথু বেলে, নাদু বেলে, নানদি বেলে, গিরি বেলে, ডোরা চেউ, ডরকি চেউ, সবুজ চেউ, কটা চেউ, সাদা চেউ, লাল চেউ, সাদা ফোঁটা মাডস্কিপার, সূঁচ পৃষ্ঠপাখনা মাডস্কিপার, ডোরা মাডস্কিপার, কই, মধুমালা, খলিসা, বইচা, চুনা বইচা, লাল বইচা
  • বর্গ- Mugiliformes
    খল্লা, কেচি খল্লা
  • বর্গ- Polynemiformes
    তপসে
  • বর্গ- Mastacembliformes
    বড় বাইম. গুচি বাইম, তারা বাইম
  • বর্গ- Tetraodontiformes
    টেপা, পটকা 

ইচা, চিংড়ি ও লবস্টার:

  • ইচা
    গলদা ইচা, ঠেঙ্গুয়া ইচা, শলা ইচা, ছটকা ইচা, কাঠালিয়া ইচা, কাইরা ইচা, গোদা ইচা, কুঞ্চু ইচা, লটিয়া ইচা, গুঁড়া ইচা
  • চিংড়ি
    বাগদা চিংড়ি, চাপড়া চিংড়ি, বাঘতারা চিংড়ি, কোলা চিংড়ি, লালচামা চিংড়ি, চাপদা চিংড়ি, হরিণা চিংড়ি, লালিয়া চিংড়ি, খরখরিয়া চিংড়ি, কেরাণী চিংড়ি, কচু চিংড়ি, রোডা চিংড়ি, গোসা চিংড়ি, চামা চিংড়ি, খইড়া চিংড়ি, সোরা চিংড়ি, কারা চিংড়ি
  • লবস্টার
    কন্টকযুক্ত লবস্টার, নীলকন্টক লবস্টার, বেলচানাসা লবস্টার

কাঁকড়া
সীলা কাঁকড়া, যোগী কাঁকড়া, সাতারু কাঁকড়া, নেপচুন কাঁকড়া, থেলামিটা কাঁকড়া,লুনারি কাঁকড়া, প্লানিপ কাঁকড়া, লাল কাঁকড়া, ফিডলার কাঁকড়া, সৈনিক কাঁকড়া, মাকড়সা কাঁকড়া, ম্যানসনি কাঁকড়া, চিমটা কাঁকড়া, কাঁটা কাঁকড়া, পাতাফলক কাঁকড়া

কাছিম ও কাইট্টা

  • কাছিম
    খালুয়া কাছিম, ধূম কাছিম, জাতা কাছিম, ছিম কাছিম,সুন্দী কাছিম, মগম কাছিম
  • কাইট্টা
    কালি কাইট্টা, হলদী কাইট্টা, কড়ি কাইট্টা, ভাইটাল কাইট্টা,মাটিয়া কাইট্টা
  • সামুদ্রিক কাছিম
    চামুয়া কাছিম, কাঁটা কাছিম, ইমিছ কাছিম, অ্যামবয়া কাছিম, পিকটা কাছিম

Visited 399 times, 1 visits today | Have any fisheries relevant question?

Visitors' Opinion

Leave a Reply