ক্যাটাগরি: নানাবিধ | শব্দকোষ

মাৎস্য শব্দকোষ: হ

উন্নয়নকল্পে পাতাটি dictionary.bdfish.org-তে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

আপনার কাঙ্ক্ষিত শব্দ খুঁজতে dictionary.bdfish.org পরির্দশন করুন।

হলোব্রাঙ্ক ফুলকা(Holobranch gill)
একটি আদর্শ ফুলকা দুই সারিতে (Raw) বিন্যস্ত অসংখ্য ফিলামেন্ট (Filament) নিয়ে গঠিত যার এক প্রান্ত গিল আর্চের (Gill arch) সাথে সংযুক্ত থাকে। এদেরকে হলোব্রাঙ্ক (Holobranch) ফুলকাও বলা হয়।

হাইবারনেশন (Hibernation) বা শীতনিদ্রা
শীতকালে অর্থাৎ শীতল পরিবেশে শীতল-রক্ত বিশিষ্ট (Poikilothermic বা Ectothermic বা Cold-blooded) প্রাণীরা নিষ্ক্রিয় জীবন যাপন করে থাকে যাকে হাইবানেশন (Hibernation) বা শীতনিদ্রা বলে। শীতনিদ্রায় যাওয়া প্রাণীদের বিপাকক্রিয়া, শ্বসন ও রক্তসঞ্চালন অত্যন্ত ধীরগতির তথা সর্ব নিম্নপর্যায়ে থাকে, খাদ্য গ্রহণ না করায় প্রয়োজনীয় শক্তি সঞ্চিত স্নেহপদার্থ (Fat) থেকে পেয়ে থাকে। শীতল-রক্ত বিশিষ্ট প্রাণীদের শরীরের তাপমাত্রা পরিবেশের তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে বিধায় পরিবেশের তাপমাত্রা কমে গেলে তাদের ঐ স্থান হতে উষ্ণ স্থানে যেতে হয় নতুবা নিষ্ক্রিয় জীবন যাপন করতে হয়।

হাইপোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনা (Hypocercal caudal fin)
হাইপোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনার শেষ প্রান্ত দ্বিধাবিভক্ত হয়ে একে এমন দুটি অসম খণ্ডে (lobe) বিভক্ত করে যার অঙ্কীয় খণ্ড (Ventral বা Hypochordal lobe) পৃষ্ঠ খণ্ডের (Dorsal বা Epichordal lobe) চেয়ে বড় হয়ে থাকে। অর্থাৎ এর বাহ্যিক গঠন হেটেরোসার্ক্যালের ঠিক বিপরীত। কিন্তু এ ধরণের পুচ্ছ পাখনা যেখানে দ্বিধাবিভক্ত হয় তার পূর্বেই মেরুদণ্ড শেষ হয়ে যায়। ওসট্রাকোডার্মের (Ostracoderms) মত আদি মাছে যেমন এই পাখনা দেখতে পাওয়া যায় তেমনই আধুনিক উড়ুক্কু মাছেও (Flying fish, Cypselurus) এ ধরণের পাখনা দেখতে পাওয়া যায়।

হিমশোণিত বা শীতল-রক্ত বিশিষ্ট প্রাণী (Cold-blooded animal, Ectothermic or Poikilothermic or Heterothermic animal)
শীতল-রক্ত বিশিষ্ট (Poikilothermy বা Cold-blooded) প্রাণী বলতে সেসব প্রাণীদের বোঝায় যাদের দেহের তাপমাত্রা শরীরবৃত্তীয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত না হয়ে বাহ্যিক পরিবেশ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে অর্থাৎ দেহের তাপমাত্রা সুনির্দিষ্ট নয়, পরিবেশের তাপমাত্রা বাড়লে দেহের তাপমাত্রা বাড়ে আবার পরিবেশের তাপমাত্রা কমলে দেহের তাপমাত্রা কমে। যেমন- মাছ, ব্যাঙ, কুমির ইত্যাদি।

হেটেরোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনা (Heterocercal caudal fin)
হেটেরোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনার শেষ প্রান্ত দ্বিধাবিভক্ত হয়ে একে এমন দুটি অসম খণ্ডে (lobe) বিভক্ত করে যার পৃষ্ঠ খণ্ড (Dorsal বা Epichordal lobe) অঙ্কীয় খণ্ডের (Ventral বা Hypochordal lobe e) চেয়ে বড় হয়ে থাকে। এ ধরণের পুচ্ছ পাখনায় মেরুদণ্ডের শেষ প্রান্ত উপরের দিকে বেঁকে যায় এবং পৃষ্ঠ খণ্ডের জুড়ে অবস্থান করে। পটকা (Swim bladder) বিহীন, অঙ্কীয় মুখ (Ventral mouth) বিশিষ্ট তলবাসী (Bottom feeder) মাছে এধরণের পুচ্ছ পাখনা দেখতে পাওয়া যায়। আধুনিক এলাসমোব্রাঙ্ক (Elasmobranchs), বিলুপ্ত ডিপনিওন (Dipnoans) এবং জীবিত হোলোস্টিয়ানদের (Holosteans) এ ধরণের পাখনা দেখতে পাওয়া যায়।

হেমিব্রাঙ্ক বা ডেমিব্রাঙ্ক (Hemibranch or Demibranch gill)
এক সারি ফিলামেন্ট নিয়ে গঠিত ফুলকাই হচ্ছে হেমিব্রাঙ্ক বা ডেমিব্রাঙ্ক (Hemibranch or Demibranch)। উল্লেখ্য যে, আদর্শ ফুলকা দুই সারিতে (Raw) বিন্যস্ত অসংখ্য ফিলামেন্ট (Filament) নিয়ে গঠিত।

হোমোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনা (Homocercal caudal fin)
হোমোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনার শেষ প্রান্ত বিস্তৃত হয়ে দুটি সম খণ্ডে (lobe) বিভক্ত হয়। অর্থাৎ এর পৃষ্ঠ খণ্ড (Dorsal বা Epichordal lobe) ও অঙ্কীয় খণ্ড (Ventral বা Hypochordal lobe) সমান হয়ে থাকে। তবে বাহ্যিকভাবে উভয় খণ্ড সমান হলেও এ ধরণের পুচ্ছ পাখনায় মেরুদণ্ডের শেষ প্রান্ত (ইউরোস্টইল, Urostyle) উপরের দিকে বেঁকে যায়।
হোমোসার্ক্যাল পুচ্ছ পাখনা আবার কয়েক ধরনের হয়ে থাকে। যথা- ফর্কড (Forked): এর শেষ প্রান্ত দ্বিধাবিভক্ত হয়ে ফর্কড গঠন করে তবে ইউরোস্টাইল উপরের দিকে বাঁকানো থাকে, যা রুইজাতীয় মাছে দেখা যায়। লুনার (Lunar): এর শেষ প্রান্ত দ্বিধাবিভক্ত হলেও তা ফর্কড এর মত গভীর নয় এবং এক্ষেত্রে ইউরোস্টাইল অবলুপ্ত বা অনুপস্থিত, যা টুনা মাছে দেখা যায়। গোলাকার (Rounded) এর শেষ প্রান্ত দ্বিধাবিভক্ত না হয়ে গোলাকার হয়ে থাকে তবে ইউরোস্টাইল উপরের দিকে বেঁকে পাখনার শেষ প্রান্তে পৌঁছায়, যা Amia তে দেখা যায়)।

এই পাতাটি উন্নয়নকল্পে dictionary.bdfish.org-তে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এর উন্নয়নে অংশ নিতে পারেন আপনিও। আপনার কাঙ্ক্ষিত শব্দটি পাঠিয়ে দিন add-word@bdfish.org ইমেইল ঠিকানায়।

Visitors' Opinion

লেখক

প্রফেসর, ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী-৬২০৫, বাংলাদেশ। বিস্তারিত ...

Leave a Reply