ক্যাটাগরি: উপকূলীয় মাছ | মাছ | মাৎস্য সম্পদ | স্বাদুপানির মাছ

বাংলাদেশের মাছ: খারু বা বামোশ (Rice-paddy eel, Pisodonophis boro)

বাংলাদেশের মাছ: বামোশ (Rice-paddy eel, Pisodonophis boro)

বাংলাদেশের মাছ: বামোশ (Rice-paddy eel, Pisodonophis boro)

শ্রেণীতাত্ত্বিক অবস্থান (taxonomic position):
পর্ব: Chordata
শ্রেণী: Actinopterygii (Ray-finned fishes)
বর্গ: Anguilliformes (Eels)
গোত্র: Ophichthidae (Snake eels and worm eels)
উপগোত্র: Ophichthinae (Snake eels)
গণ: Pisodonophis
প্রজাতি: Pisodonophis boro

 

সাধারণ নাম (common name):

  • ইংরেজি: Rice-paddy eel
  • স্থানীয় বাংলা: খারু, বামোশ, বোরো বাইম, হিজরা, কেঁচো বাইম, নল বাইম ইত্যাদি

 

সমনাম (Synonyms):

  • Conger microstoma Eydoux & Souleyet, 1850
  • Ophichthys boro (Hamilton, 1822)
  • Ophisurus baccidens Cantor, 1849
  • Ophisurus boro Hamilton, 1822
  • Ophisurus brachysoma Bleeker, 1852
  • Ophisurus caudatus McClelland, 1844
  • Ophisurus harancha Hamilton, 1822
  • Ophisurus potamophilus Bleeker, 1853
  • Ophisurus schaapii Bleeker, 1853
  • Ophisurus sinensis Richardson, 1848
  • Ophiurus baccidens Cantor, 1849
  • Pisodonophis assamensis Sen, 1986

 

ভৌগোলিক বিস্তৃতি (geographical distribution):
পশ্চিম ভারতীয় প্রশান্ত মহাসাগর এলাকা (Talwar and Jhingran, 1991)।

 

সংরক্ষণ অবস্থা (conservation status):
এই প্রজাতিটি বাংলাদেশে বিলুপ্ত নয় তবে সুরক্ষিতও (vulnerable) নয় (IUCN Bangladesh, 2000)।

 

বহি: অঙ্গসংস্থান (External morphology):
লম্বা দেহ দেখতে অনেকটা সাপের মত নলাকার। সম্মুখের নাসারন্ধ্র নলাকৃতির। পার্শ্বরেখা অস্পষ্ট বা দৃশ্যমান নয়। শ্রোণী পাখনা অনুপস্থিত। বক্ষপাখনা গোলাকার। দেহের পৃষ্ঠদিক বাদামী-জলপাই বর্ণের এবং অঙ্কীয়দিক হালকা বর্ণের হয়ে থাকে। দেহে হালকা কালো বর্ণের দাগ দেখতে পাওয়া যায়। পৃষ্ঠীয় পাখনার কিনারায় সরু দাগ দেখতে পাওয়া যায়।

 

পাখনা সূত্র (Fin formula):
D. 320-400; P. 113; A. 250-270 (Shafi and Quddus, 2001)

 

সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য:
Talwar and Jhingran (1991) ও Huda et al.(2003) অনুসারে ৭০ সেমি। অন্যদিকে Shafi and Quddus (2001) অনুসারে ৪২ সেমি।

 

বাসস্থান:
মোহনা, নদী ও প্লাবনভূমিতে (IUCN Bangladesh, 2000); অগভীর লবণাক্ত হ্রদ ও মোহনাতে; মিঠাপানি ও ধানক্ষেতে (Talwar and Jhingran, 1991) এরা বাস করে। এছাড়াও সুন্দরবন (Huda et al., 2003) ও নদীর তলদেশে গর্ত করে (Rahman, 2005) এদের বাস করতে দেখা যায়।

 

খাদ্য ও খাদ্যাভ্যাস:
এরা সাধারণত ছোট মাছ খেয়ে থাকে। নিশাচর অর্থাৎ রাতে খাবার খায় (Rahman, 1989 and 2005)।

 

মৎস্য তথ্য:
অন্যান্য মাছের সাথে ধরা হয় (Talwar and Jhingran, 1991)। বাংলাদেশের খুলনা জেলার দক্ষিণাঞ্চলে এদের প্রচুর পরিমাণে দেখতে পাওয়া যায় (Shafi and Quddus, 2001)।

 

Reference:

  • Bleeker P (1853) Bijdrage tot de kennis der Muraenoïden en Symbranchoïden van den Indischen Archipel. Verhandelingen van het Bataviaasch Genootschap van Kunsten en Wetenschappen.25(5):1-62+ 63-75.
    Cantor TE (1849) Catalogue of Malayan fishes. Journal and Proceedings of the Asiatic Society of Bengal 18(2): i-xii + 983-1443, Pls. 1-14.
  • Eydoux JFT and Souleyet FA (1850) Poissons. Pp. 155-216. In: Voyage autour du monde exécuté pendant les années 1836 et 1837 sur la corvette La Bonite, commandée par M. Vaillant. Zoologie, Vol. 1 (pt 2). Paris. Voyage autour du monde exécuté pendant les années 1836 et 1837 sur la corvette La Bonite, commandée par M. Vaillant. Zoologie, 1(2): i-iv, i-xxxix, 1-334, Pls. 1-10.
  • Hamilton F (1822) An account of the fishes found in the river Ganges and its branches. Edinburgh & London. An account of the fishes found in the river Ganges and its branches.: i-vii + 1-405, Pls. 1-39.
  • Huda MS, Haque ME, Babul AS and Shil NC (ed.) (2003) Field guide to finfishes of Sundarban, Aquatic resources division, Sundarban, Boyra, Khulna, Bangladesh, p. 56.
  • IUCN Bangladesh (2000) Red book of threatened fishes of Bangladesh, IUCN- The world conservation union. xii+116 pp.
  • McClelland J (1844) Apodal fishes of Bengal. Calcutta Journal of Natural History 5(18):151-226, Pls. 5-14.
  • Rahman AKA (1989) Freshwater Fishes of Bangladesh, 1st edition, Zoological Society of Bangladesh, Department of Zoology, University of Dhaka, Dhaka-1000, pp. 43-44.
  • Rahman AKA (2005) Freshwater Fishes of Bangladesh, 2nd edition, Zoological Society of Bangladesh, Department of Zoology, University of Dhaka, Dhaka-1000, pp. 58-59.
  • Richardson J (1848) Ichthyology of the voyage of H. M. S. Erebus & Terror,… In: J. Richardson & J. E. Gray. The zoology of the voyage of H. H. S. “Erebus & Terror,” under the command of Captain Sir J. C. Ross … during … 1839-43. London. Ichthyology of the voyage of H. M. S. Erebus & Terror,… 2(2): i-viii + 1-139, Pls. 1-60.
  • Shafi M and Quddus MMA (2001) Bangladesher Matsho Shampad (Fisheries of Bangladesh) (in Bengali), Kabir publication. Dhaka, Bangladesh. pp. 21-22.
  • Sen TK (1986) Description of a new species, Pisodonophis, assamensis, a new eel from lower Assam with a key to the Indian Ophichthidae (family: Ophichthidae / genus: Pisodonophis). Bulletin of the Zoological Survey of India 7(2-3): 241-244.
  • Talwar PK and Jhingran AG (1991) Inland Fishes of India and Adjacent Countries, Vol. 1, Oxford & IBH Publishing Co. Pvt. Ltd. New Delhi-Calcutta, pp. 86-87.

 

পুনশ্চ:
English Feature: Rice-paddy eel, Pisodonophis boro (Hamilton, 1822)

Visitors' Opinion

লেখক

Research Student, Bangladesh Agricultural University, Mymensingh-2202, Bangladesh. E-mail- Kamrulhasanak@gmail.com. More...

Leave a Reply