ক্যাটাগরি: বিদেশী মাছ | মাছ | মাৎস্য সম্পদ

বাংলাদেশের বিদেশী মাছ: অস্কার, Oscar, Astronotus ocellatus

Astronotus ocellatus: Marble/Red/Velvet/Tiger Oscar

Astronotus ocellatus: Marble/Red/Velvet/Tiger Oscar

দক্ষিণ আমেরিকার মাছ অস্কার (Oscar, Astronotus ocellatus) এ্যাকুয়ারিয়ামের বাহারি মাছ হিসেবে থাইল্যান্ড থেকে প্রথম আমাদের দেশের নিয়ে আসে বাহারি মাছের ব্যবসায়ীরা। বর্তমানে ঢাকা ছাড়াও দেশের অন্যান্য বড় শহরের (যেমন চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী ইত্যাদি) বাহারি মাছের দোকানে এই মাছের দেখা মেলে।

শ্রেণীতাত্ত্বিক অবস্থান (Systematic position)
পর্ব: Chordata (chordates)
শ্রেণী: Actinopterygii (Ray-finned fishes)
বর্গ: Perciformes (perch-like fishes)
পরিবার: Cichlidae (cichlids)
গণ: Astronotus
প্রজাতি: Astronotus ocellatus (Spix and Agassiz, 1831)

ভ্যারাইটি (Variety)

  • মার্বেল/লাল/ভেলভেট/টাইগার অস্কার (Marble/Red/Velvet/Tiger Oscar)
  • সোনালী অস্কার (Golden Oscar) এবং
  • এলবিনো/লুটিনো/সাদা অস্কার (Albino/Lutino/White Oscar)

সমনাম (Synonyms)
Acara compressus Cope, 1872
Acara hyposticta Cope, 1878
Astronotus ocellatus ocellatus (Spix and Agassiz, 1831)
Astronotus ocellatus zebra Pellegrin, 1904
Astronotus orbiculatus Haseman, 1911
Cychla rubroocellata Schomburgk, 1843
Lobotes ocellatus Spix and Agassiz, 1831

সাধারণ নাম (Common name)
বাংলা: অস্কার। ভ্যারাইটি অনুসারে এদের সাধারণ নাম ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে যেমন- মার্বেল/লাল/ভেলভেট/টাইগার অস্কার, সোনালী অস্কার এবং এলবিনো/লুটিনো/সাদা অস্কার, মার্বেল চিকলিড, পিকক আই, ভেলভেট চিকলিড ইত্যাদি।
English: Marble/Red/Velvet /Tiger Oscar, Golden Oscar and Albino/Lutino/White Oscar etc. (according to variety), Marble Cichlid, Peacock Eye, Velvet Cichlid etc.

Astronotus ocellatus: Marble/Red/Velvet/Tiger Oscar

Astronotus ocellatus: Marble/Red/Velvet/Tiger Oscar

বিস্তৃতি (Distribution)
Thomas et al. (2003) অনুসারে এদের আদিবাস দক্ষিণ আমেরিকার আমাজন নদী ও এর অববাহিকা (Amazon basin) এবং পূর্ব ভেনেজুয়েলা (Venezuela)।
Seriouslyfish (2014) অনুসারে কলম্বিয়া (Colombia), ভেনেজুয়েলা (Venezuela), বলিভিয়া (Bolivia), ইকুয়েডর (Ecuador), পেরু (Peru), ব্রাজিল (Brazil), ফরাসি গায়ানা (French Guiana), প্যারাগুয়ে (Paraguay), উরুগুয়ে (Uruguay) এবং আর্জেন্টিনা (Argentina)।
তবে বাহারি মাছ হিসেবে অস্কার পৃথিবীর দেশে দেশে বিস্তার লাভ করেছে যেমনটা করেছে বাংলাদেশ।
Fishbase (2014) অনুসারে প্রকৃতিতে এদের বিস্তৃতি 4°N – 15°S, 78°W – 47°W ।

সংরক্ষণ অবস্থা (Conservation status)
IUCN 2013 অনুসারে আইইউসিএন এর হুমকিগ্রস্ত প্রজাতির লাল তালিকায় (The IUCN Red List of Threatened Species) এদের অবস্থান Not Evaluated অর্থাৎ এই মাছের সংরক্ষণ অবস্থা এখনও মূল্যায়ন করা হয়নি।

দৈহিক গঠন (Morphology)
লম্বা ও প্রশস্ত দেহ পার্শ্বীয়ভাবে চাপা। পুচ্ছ পাখনার প্রান্ত গোলাকার। অধিকাংশ ভ্যারাইটিতেই পুচ্ছ পাখনার গোঁড়ায় ওসিলি (ocelli) বা চক্ষু-দাগ (eye-spots) দেখতে পাওয়া যায়। এদের পৃষ্ঠ পাখনায় ১২-১৪ কণ্টকিত রশ্মি (spines rays) ও ১৯-২১ টি নরম রশ্মি (soft rays) এবং পায়ু পাখনায় ৩টি কণ্টকিত রশ্মি ও ১৫-১৭টি নরম রশ্মি দেখতে পাওয়া যায় (Eol, 2014)।
দেহের বর্ণ ভ্যারাইটি অনুসারে আলাদা আলাদা হয়ে থাকে। যেমন- সাদা/এলবিনো/লুটিনো অস্কারের দেহ সাদা। এর মাঝে বক্ষ, শ্রোণী ও পায়ু পাখনার গোঁড়ার নিকটে অনিয়মিতভাবে বাদামী দাগ দেখতে পাওয়া যায়। সোনালি অস্কারের সারা দেহই সোনালী বা লালচে বর্ণের। অন্যদিকে মার্বেল/লাল/ভেলভেট/টাইগার অস্কারের দেহ গাঢ় সবুজ-জলপাই/ধূসর-বাদামী/চকলেট-কালো বর্ণের হয়ে থাকে। এর মাঝে কমলা-লাল বর্ণের অনিয়মিত দাগ দেখতে পাওয়া যায়।

Astronotus ocellatus: Albino/Lutino/White Oscar

Astronotus ocellatus: Albino/Lutino/White Oscar

সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য (Maximum length)
এদের সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য ২৫-৩৫ সেমি (Seriouslyfish, 2014)। Fishbase (2014) অনুসারে সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য ৪৫.৭ সেমি এবং সর্বোচ্চ ওজন ১.৬ কেজি।

আবাস্থল (Habitat)
এরা উষ্ণ জলের বনভূমি অঞ্চলের ধীর স্রোত বিশিষ্ট অগভীর নদী ও ঝর্ণার মাছ। এরা ডুবন্ত জলজ উদ্ভিদ ও জলাশয়কে আবৃত করে রাখে এমন উদ্ভিদ উপস্থিতি পছন্দ করে।

খাদ্য এবং খাদ্যাভ্যাস (Food and feeding habit)
প্রকৃতিতে এরা প্রধানত মাংসাশী ও শিকারি। এরা পতঙ্গ (insects), ক্রাস্টেশিয়ানস (crustaceans) ও প্রাণিকণা (zooplankton) এমনকি ছোট মাছও খেয়ে থাকে। প্রধানত মাংসাশী হলেও এরা জলজ উদ্ভিদ ও উদ্ভিদাংশ খেয়ে থাকে।
এ্যাকুয়ারিয়ামে এরা বাহারি মাছের দোকানে প্রাপ্ত বিভিন্ন ধরণের প্যাকেটজাত বাণিজ্যিক মাছের খাবার যেমন- ফ্লেকস (flakes), পিলেট (pellets) ইত্যাদি খেয়ে থাকে। এমনকি মাংসের টুকরাও এরা খাবার হিসেবে সহজেই গ্রহণ করে।
জীবন্ত খাবার হিসেবে এরা কেঁচো (earthworms), চিংড়ি (prawns) ইত্যাদি খেয়ে থাকে।

জীবনকাল ও প্রজনন (Lifecycle and Breeding)
প্রকৃতিতে এদের জীবনকাল ১০-১৩ বছর (Fishlore 2014)। কিন্তু এ্যাকুয়ারিয়ামে ভাল ব্যবস্থায় এরা ২০ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে এবং ওজনে ১.১ কেজি পর্যন্ত হয়ে থাকে (Robins, 2014)।
এদের পুরুষ ও স্ত্রী মাছ আলাদা তবে এদের মধ্যে পার্থক্য করা খুবই কঠিন। প্রজনন ঋতুতে একই বয়সের পুরুষেরা স্ত্রীদের চেয়ে লম্বা হয়ে থাকে এবং দেহের বর্ণও স্ত্রীদের চেয়ে পুরুষদের উজ্জ্বল হয়ে থাকে। প্রজনন কালে অস্কার প্রজনন নালী (breeding tube) গঠন করে। স্ত্রীদের প্রজনন নালী অভিপোজিটর নালী (ovipositor tube) নামে পরিচিত যার অগ্রপ্রান্ত ভোঁতা প্রকৃতির অন্যদিকে পুরুষদের প্রজনন নালী শুক্র নালী (sperm duct) নামে পরিচিত যা তুলনামূলক সরু বা তীক্ষ্ণ হয়ে থাকে।
Sharpe (2014) অনুসারে অস্কার বয়সে এক বছর এবং দৈর্ঘ্যে বার সেমি হলেই পরিণত হয়ে থাকে। সাধারণত স্ত্রীরা শক্ত অবকাঠামো যেমন পাথর, গাছের গুড়ি ইত্যাদির সমতল তলে ডিম আটকে রাখে এবং স্ত্রী ও পুরুষ উভয়ে পাহারা দেয় (Akhter, 1995)। তিন থেকে চার দিনের মধ্যেই ডিম ফুটে বাচ্চা বেড় হয়। মা-বাবা সম্মিলিতভাবে বাচ্চাগুলোকে একটি বালির গর্তে স্থানান্তর করে এক সপ্তাহের জন্য। এসময় মা-বাবা বাচ্চাদের সাথে সাথেই থাকে যতক্ষণ না বাচ্চারা নিজেরাই সাঁতারে পটু হয়ে ওঠে।
Aquaticcommunity (2014) অনুসারে কোন কোন স্ত্রী অস্কারের মধ্যে সমকামিতা দেখতে পাওয়া যায়। এমন ক্ষেত্রে এক জোড়া স্ত্রী অস্কার জুটিবদ্ধ হয়ে ডিম পাড়ে। স্বাভাবিকভাবেই এই ডিম থেকে কোন বাচ্চা (fry) পাওয়া যায় না।
Seriouslyfish (2014) অনুসারে একটি স্ত্রী মাছ ২০০০টি পর্যন্ত ডিম পাড়ে। প্রজননের উদ্দেশ্যে প্রজনন এ্যাকুয়ারিয়ামে প্রজনন উপযোগী তিন জোড়া (কমপক্ষে) মাছ ছাড়তে হবে। এর মধ্যে একজোড়া জুটি বাঁধলে অন্যদের দ্রুত সরিয়ে নিতে হবে। এদের আঠালো ডিম যাতে সহজে আটকে থাকতে পারে সেজন্য কিছু পাথর (যার উপরিতল সমতল) স্থাপন করা আবশ্যক। স্ত্রীরা ডিম পাড়ার পর পুরুষেরা ডিমগুলিকে নিষিক্ত করলে স্ত্রী ও পুরুষকে অন্য এ্যাকুয়ারিয়ামে স্থানান্তর করতে হবে যাতে ডিমের কোন ক্ষতি করতে না পারে।

Astronotus ocellatus: Albino/Lutino/White Oscar

Astronotus ocellatus: Albino/Lutino/White Oscar

উপযোগী পরিবেশ (Suitable Environment)
স্বাদুপানির এই মাছ জলাশয়ের তলদেশের কাছাকাছি থাকতে পছন্দ করে। প্রকৃতিতে এই মাছের অনুকূল পরিবেশ হচ্ছে- পিএইচ (pH): ৬-৮, হার্ডনেস (Hardness): ৫-১৯ dH, এবং তাপমাত্রা: ২২-২৫ ডিগ্রী সে (Fishbase, 2014)।
Fishlore (2014) অনুসারে এ্যাকুয়ারিয়ামে এদের অনুকূল তাপমাত্রা ৭২-৮০° ফা. বা ২২-২৭° সে., হার্ডনেস (Hardness): ৫°-২০° dH এবং পিএইচ ৬-৮।
Brough (2014) অনুসারে অস্কারের জন্য একটি আদর্শ এ্যাকুয়ারিয়ামের পানি ধারণ ক্ষমতা সর্বনিম্ন ৩৭৯ লিটার, তলদেশ বালুময়, আলোর মাত্রা স্বাভাবিক, তাপমাত্রা ২২.২-২৫ ডিগ্রি সে. (প্রজননের সময় ২৬-৩০ ডিগ্রি সে.), পিএইচ ৬.৫-৭.২, পানির ধরণ স্বাদুপানি ও মৃদু পানি প্রবাহের ব্যবস্থা থাকা আবশ্যক।
Seriouslyfish (2014) অনুসারে এ্যাকুয়ারিয়ামের আকার ১৫০x৬০ সেমি। পিএইচ (pH): ৬-৭.৫, হার্ডনেস (Hardness): ৯০-৩৫৭ পিপিএম (ppm) এবং তাপমাত্রা: ২০-২৮ ডিগ্রী সে.।
এরা খুবই আক্রমণাত্মক মাছ (Theaquariumwiki, 2014)। তাই এ্যাকুয়ারিয়ামে অন্যান্য মাছের (বিশেষত ছোট আকারের) সাথে না রাখাই যুক্তিসঙ্গত।

রোগ (Diseases)
বাংলাদেশে এই মাছে র রোগের উপস্থিতি বিষয়ক কোন তথ্য পাওয়া যায় না।
Oscarfishlover (2014) অনুসারে এ্যাকুয়ারিয়ামে অস্কারে “মাথার মধ্যে গহ্বর” (hole in the head) নামক রোগ দেখতে পাওয়া যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি জীবনঘাতি নয় এবং নিরাময় যোগ্য তবে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করাই শ্রেয়। যেমন নিয়মিত এ্যাকুয়ারিয়াম পরিস্কার, পানি পরিবর্তন, ময়লা অপসারণ, ফিল্টার ব্যবস্থা চালু রাখা ইত্যাদি।

অর্থনৈতিক গুরুত্ব (Economic importance)
ব্যতিক্রমী দৃষ্টিনন্দন বৈশিষ্ট্য ও উচ্চমূল্যের কারণে এ্যাকুয়ারিয়ামের বাহারি মাছ হিসেবে অভিজাত মৎস্যপ্রেমীদের কাছে এই মাছ অত্যন্ত জনপ্রিয়। শক্ত প্রকৃতির এই মাছের ব্যবস্থাপনা সহজ হওয়ায় যারা এ্যাকুয়ারিয়ামে বাহারি মাছ পালন শুরু করতে আগ্রহী তারা এই মাছ নির্বাচন করতে পারেন নিশ্চিতভাবেই।
পৃথিবীব্যাপী এর চাহিদা থাকায় পোনা উৎপাদন করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করা সম্ভব।

বাজার মূল্য:
বাংলাদেশে ভ্যারাইটি ও উৎস ভেদে ৪০০-৭০০ টাকায় এক জোড়া অস্কার পাওয়া যায় (Galib and Mohsin, 2011)।

 

Astronotus ocellatus: Golden Oscar

Astronotus ocellatus: Golden Oscar

তথ্য সূত্র (References)

Visitors' Opinion

লেখক

প্রফেসর, ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী-৬২০৫, বাংলাদেশ। বিস্তারিত ...

Leave a Reply