ক্যাটাগরি: নানাবিধ | রেসিপি

রেসিপি: চিতল মাছের মুইঠা

চিতল মাছের মুইঠা

চিতল মাছের মুইঠা

যা যা লাগবে

  • চিতল মাছের কাঁচা কিমা – ৪ কাপ
  • পেঁয়াজ কুঁচি – ১ কাপ
  • রসুন বাটা – দেড় চা চামচ
  • আদা বাটা – দেড় চা চামচ
  • হলুদ বাটা – ১ চা চামচ
  • জিরা বাটা – আধা চা চামচ
  • শুকনা মরিচ বাটা – আধা চা চামচ
  • টমেটো কুঁচি – ১ কাপ
  • কাঁচা মরিচ – ৩ টি (মিহি কুঁচি করা)
  • ডিমের (সাদা) – ১ টি
  • লবণ – স্বাদমত
  • তেল – পরিমাণগত

 

প্রণালী

  • চিতল মাছের টুকরা গুলো ভাল করে পরিষ্কার করে লবণ দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • এবার চিতল মাছের ত্বক ছাড়িয়ে নিন অর্থাৎ খুলে নিন (এবং ত্বক ফেলে দিন)৷
  • ত্বক ছাড়ানো চিতল মাছের কাঁটা খুবই ভাল করে বেছে নিন অথবা বেটে নিন কিংবা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন (এতে কাঁটা মিশে যাবে। চিতল মাছে যেহেতু অনেক কাঁটা তাই কাজটি যত্নের সাথে করুন)৷
  • উল্লেখিত যেকোনো একটি পদ্ধতি ব্যবহার করে প্রস্তুতকৃত কাঁচা মাছের সাথে একে একে সামান্য একটু আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ কুঁচি ও ডিমের সাদা অংশ, সবগুলো কাঁচা মরিচের মিহি কুঁচি এবং সামান্য লবণ দিয়ে ভাল করে মাখিয়ে নিন।
  • কিছুসময় পর হাতের মুঠোতে চেপে গোল বল বা মুইঠা তৈরি করুন।
  • এবার অন্য আরেকটি পাত্র চুলায় দিয়ে তাতে একে একে অবশিষ্ট পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে হালকা বাদামি করে ভেজে নিন।
  • ভাজা মরিচের সাথে একে একে অবশিষ্ট রসুন বাটা ও আদা বাটা, সম্পূর্ণ হলুদ বাটা, জিরা বাটা, শুকনা মরিচ বাটা ও টমেটো কুঁচি দিয়ে মসলা কষিয়ে নিন।
  • এবার আগে থেকে তৈরি করে রাখা মুইঠা গুলো মসলাতে ছেড়ে একটু পানি দিয়ে কষিয়ে নিন।
  • আরও একটু পরিমাণগত পানি দিন এবং মুইঠাগুলো সিদ্ধ হবার জন্য ঢেকে রান্না করুন।
  • পুরোপুরি সিদ্ধ হয়েছে কিনা বোঝার জন্য একটি মুইঠা তুলে ছুরি দিয়ে মাজ বরাবর কেটে দেখুন।
  • সিদ্ধ হয়ে ভুনা ভুনা হয়ে এলে নামিয়ে নিন।

 

পরিবেশন:

  • গরম গরম পরিবেশন করুন পোলাও বা সাদা ভাতের সাথে।

 

Visitors' Opinion

লেখক

বিডিফিশের প্রবাসী লেখক নুসরাত আহমেদ পছন্দ করেন রান্না করতে আর ছবি তুলতে। তার লেখা রান্নার রেসিপি নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে বিডিফিশ বাংলায়। আর তার তোলা ছবি রয়েছে বিডিফিশ গ্যালারিতে

Leave a Reply