ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি | হ্যাচারি

রুই জাতীয় মাছ চাষের বর্ষপঞ্জী: মৎস্য হ্যাচারি ব্যবস্থাপনা

রুই জাতীয় মাছ চাষের বর্ষপঞ্জী: হ্যাচারি ব্যবস্থাপনা

রুই জাতীয় মাছ চাষের বর্ষপঞ্জী: মৎস্য হ্যাচারি ব্যবস্থাপনা

রুই জাতীয় মাছ চাষের কার্যক্রমের মধ্যে প্রধানত তিন ধরণের পুকুর (আঁতুড় পুকুর, চারা পুকুর ও মজুদ পুকুর) ও হ্যাচারি ব্যবস্থাপনা অন্তর্ভুক্ত। এ লেখায় মৎস্য হ্যাচারি ব্যবস্থাপনার বর্ষপঞ্জী উপস্থাপন করা হল। আগের তিনটি লেখায় আঁতুড় পুকুর, চারা পুকুরমজুদ পুকুর ব্যবস্থাপনার বর্ষপঞ্জী উপস্থাপন করা হয়েছে।

 

বৈশাখ (এপ্রিল-মে)

  • ব্রুড মাছের পুকুরের যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন। রোগ প্রতিরোধে নিয়মানুসারে চুন ও লবণ প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • এ সময় পরিণত রুই জাতীয় মাছের উদরে ডিম বা শুক্রাণু উৎপন্ন হয়ে থাকে তাই এ সময় অতিরিক্ত যত্ন নিন।
  • ব্রুড মাছ এখনও সংগ্রহ করে না থাকলে এখনই যত্নের সাথে সংগ্রহ করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি এখনও সংগ্রহে না থাকলে নতুন করে সংগ্রহের ব্যবস্থা এখনই করুন।
  • রেণু ক্রেতার চাহিদার অনুসারে কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে পোনা উৎপাদন শুরু করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।

 

জ্যৈষ্ঠ (মে-জুন)

  • রেণু ক্রেতার চাহিদার অনুসারে কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে পোনা উৎপাদন শুরু করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • এ সময় পরিণত রুই জাতীয় মাছের উদরে ডিম বা শুক্রাণু উৎপন্ন হয়ে থাকে তাই অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও বিশেষ যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও ব্রুড মাছের বিশেষায়িত খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
    জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • ব্রুড মাছ এখনও সংগ্রহ করে না থাকলে এখনই যত্নের সাথে সংগ্রহ করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি এখনও সংগ্রহে না থাকলে নতুন করে সংগ্রহের ব্যবস্থা এখনই করুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে আঁতুড় পুকুরে ভাল রেণু পোনা বাছাই করে লালনপালন করুন।

 

আষাঢ় (জুন-জুলাই)

  • রেণু ক্রেতাদের পক্ষ থেকে রেণু ক্রয়ের বুকিং গ্রহণ করুন এবং সে অনুসারে রেণু পোনা উৎপাদন করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও অতিরিক্ত যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও ব্রুড মাছের জন্য বিশেষায়িত খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি চাহিদামত মজুদ আছে কিনা লক্ষ রাখুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে চারা পুকুরে ভাল পোনা বাছাই করে লালনপালন করুন।
  • বৃষ্টি শুরু হয়ে গেছে। পানিতে পুকুরের পাড় ডুবে যাওয়া সম্ভাবনা থাকলে এখনই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুন যেমন- ক্ষতিগ্রস্ত পাড় বেঁধে নিন, নিচু পাড় উঁচু করে নিন, প্রয়োজনে জাল ও বানা সংগ্রহে রাখার ব্যবস্থা নিন।
  • আকাশ মেঘলা থাকলে বিশেষত পুকুরে অতিরিক্ত সবুজ বর্ণের উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে দ্রবীভূত অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তাই নিয়মিত পুকুর পর্যবেক্ষণ করুন এবং অক্সিজেনের অভাব দেখা দিলে তা দূরীকরণের ব্যবস্থা নিন।
  • অতিরিক্ত উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে সার ও খাবার সরবরাহ বন্ধ রাখুন।

 

শ্রাবণ (জুলাই-আগস্ট)

  • রেণু ক্রেতাদের পক্ষ থেকে রেণু ক্রয়ের বুকিং গ্রহণ করুন এবং সে অনুসারে রেণু পোনা উৎপাদন করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও অতিরিক্ত যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও ব্রুড মাছের জন্য বিশেষায়িত খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি চাহিদামত মজুদ আছে কিনা লক্ষ রাখুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে চারা পুকুরে বাছাইকৃত ভাল পোনা লালনপালন করুন।
  • এখন ভর বর্ষা। পানিতে পুকুরে পাড় ডুবে যাওয়া সম্ভাবনা থাকলে এখনই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুন যেমন- ক্ষতিগ্রস্ত পাড় বেঁধে নিন, নিচু পাড় উঁচু করে নিন, প্রয়োজনে জাল ও বানা সংগ্রহে রাখুন।
  • আকাশ মেঘলা থাকলে বিশেষত পুকুরে অতিরিক্ত সবুজ বর্ণের উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে দ্রবীভূত অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তাই নিয়মিত পুকুর পর্যবেক্ষণ করুন এবং অক্সিজেনের অভাব দেখা দিলে তা দূরীকরণের ব্যবস্থা নিন।
  • অতিরিক্ত উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে সার ও খাবার সরবরাহ বন্ধ রাখুন।

 

ভাদ্র (আগস্ট-সেপ্টেম্বর)

  • রেণু ক্রেতাদের পক্ষ থেকে রেণু ক্রয়ের বুকিং গ্রহণ করুন এবং সে অনুসারে রেণু পোনা উৎপাদন করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও অতিরিক্ত যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও ব্রুড মাছের জন্য বিশেষায়িত খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি চাহিদামত মজুদ আছে কিনা লক্ষ রাখুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে চারা পুকুরে বাছাইকৃত ভাল পোনা লালনপালন করুন।
  • এখন ভর বর্ষা। পানিতে পুকুরে পাড় ডুবে যাওয়া সম্ভাবনা থাকলে এখনই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুন যেমন- ক্ষতিগ্রস্ত পাড় বেঁধে নিন, নিচু পাড় উঁচু করে নিন, প্রয়োজনে জাল ও বানা সংগ্রহে রাখুন।
  • দুর্ঘটনাবশত পুকুরের পাড় ডুবে গেলে বা ভেঙ্গে গেলে পোনা অবমুক্ত হয়ে পড়তে পারে। সেক্ষেত্রে ভেসে যাওয়া পুকুরগুলোতে ১৫ থেকে ২০ মিটার দূরত্বে একটি চটের ব্যাগে ৫ থেকে ৭ কেজি ধানের কুড়া বা গমের ভুসি ৫০ থেকে ৬০ সেন্টিমিটার পানির নিচে একটি খুঁটির সাথে বেধে দিতে হবে। তবে ব্যাগটিতে অবশ্যই ছোট ছোট ছিদ্র করে দিতে হবে। এতে খাবার পেয়ে মাছ পুকুরেই অবস্থান করবে। তবে বেশিরভাগ মাছ অবমুক্ত হয়ে পড়লে নতুন করে শুরু করাই ভাল। সেক্ষেত্রে প্রথমেই ক্ষতিগ্রস্ত পাড় মেরামত করার পর আমাছা ও রাক্ষুসে মাছ অপসারণ করে নিন এবং নতুন করে পোনা ছাড়ার ব্যবস্থা করুন।
  • আকাশ মেঘলা থাকলে বিশেষত পুকুরে অতিরিক্ত সবুজ বর্ণের উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে দ্রবীভূত অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তাই নিয়মিত পুকুর পর্যবেক্ষণ করুন এবং অক্সিজেনের অভাব দেখা দিলে তা দূরীকরণের ব্যবস্থা নিন।
  • অতিরিক্ত উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে সার ও খাবার সরবরাহ বন্ধ রাখুন।

 

আশ্বিন (সেপ্টেম্বর-অক্টোবর)

  • রেণু উৎপাদন এবছরের মত শেষ হতে চলেছে। রেণু ক্রেতাদের পক্ষ থেকে রেণু ক্রয়ের বুকিং পেলে সে অনুসারে রেণু পোনা উৎপাদন করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি অব্যবহৃত থাকলে পরের বছরে ব্যবহারের জন্য যত্নের সাথে সংরক্ষণ করুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে চারা পুকুরে লালনপালনকৃত পোনার মধ্য থেকে সবচেয়ে উন্নত বৈশিষ্ট্যের মাছগুলো বাছাই করে ব্রুড মাছের পুকুরে স্থানান্তর করুন।
  • বর্ষা শেষ হওয়ার পথে। পুকুরে জন্মানো জলজ আগাছা অপসারণ করুন।
  • পুকুরে অতিরিক্ত সবুজ বর্ণের উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে দ্রবীভূত অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তাই নিয়মিত পুকুর পর্যবেক্ষণ করুন এবং অক্সিজেনের অভাব দেখা দিলে তা দূরীকরণের ব্যবস্থা নিন।
  • অতিরিক্ত উদ্ভিদকণা (ফাইটোপ্লাঙ্কটন) জন্মালে সার ও খাবার সরবরাহ বন্ধ রাখুন।

 

কার্তিক (অক্টোবর-নভেম্বর)

  • রেণু উৎপাদন এবছরের মত শেষ হয়েছে। গত মাসে প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা অব্যাহত রাখুন।
  • অন্যান্য ব্রুড মাছের পুকুরেরও যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি অব্যবহৃত থাকলে পরের বছরে ব্যবহারের জন্য যত্নের সাথে সংরক্ষণ করুন।
  • পরিবর্তী বছরের ব্যবহারের জন্য উন্নত ব্রুড তৈরির লক্ষে চারা পুকুরে লালনপালনকৃত পোনার মধ্য থেকে সবচেয়ে উন্নত বৈশিষ্ট্যের মাছগুলো বাছাই করে ব্রুড মাছের পুকুরে এখনও স্থানান্তর না করে থাকলে এখনই করুন।
  • শীত আসি আসি করছে। পুকুরের পানি কমতে শুরু করেছে। রোগ প্রতিরোধে শতাংশ প্রতি আধা কেজি চুন প্রয়োগ করুন।

 

অগ্রাহণ (নভেম্বর-ডিসেম্বর)

  • ব্রুড মাছের পুকুরে নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন তবে প্রয়োগের হার ধীরে ধীরে কমিয়ে দিন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • শীত এসে গেছে। পুকুরের পানি কমেছে। রোগ প্রতিরোধে শতাংশ প্রতি আধা কেজি চুন ইতোমধ্যে প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।

 

পৌষ (ডিসেম্বর-জানুয়ারি)

  • ব্রুড মাছের পুকুরে নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন তবে প্রয়োগের হার সর্বনিম্ন পর্যায়ে রাখুন। জৈব সার ব্যবহার না করে অজৈব সার ব্যবহার করুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • পুরোদমে শীত পড়েছে। পুকুরের পানিও কমেছে। রোগ প্রতিরোধে শতাংশ প্রতি আধা কেজি চুন ইতোমধ্যে প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।

 

মাঘ (জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি)

  • ব্রুড মাছের পুকুরের যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন তবে প্রয়োগের হার সীমিত পর্যায়ে রাখুন। জৈব সার ব্যবহার না করে অজৈব সার ব্যবহার করুন।
  • রোগ প্রতিরোধে নিয়মানুসারে চুন ও লবণ প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • এ মাসের শেষের দিকের পরিবেশ জীবন্ত মাছ পরিবহণের জন্য সুবিধাজনক। উন্নত ব্রুড মাছ সংগ্রহের এখনই ভাল সময়। হ্যাচারির চাহিদামত উন্নত ব্রুড মাছ এখনই সংগ্রহ করুন।
  • হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর নিজস্ব না হলে আগামী মওসুমের জন্য লিজ নবায়নের জন্য যোগাযোগ করুন।
  • আগামী মওসুমের জন্য নতুন করে হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর লিজ নিতে চাইলে খোঁজ খবর নিন।
  • যারা ঋণ নিয়ে হ্যাচারি পরিচালনা করতে আগ্রহী তারা সংশ্লিষ্ট অফিসে যোগাযোগ করুন।

 

ফাল্গুন (ফেব্রুয়ারি-মার্চ)

  • ব্রুড মাছের পুকুরের যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন তবে প্রয়োগের হার ধীরে ধীরে বাড়াতে থাকুন।
  • রোগ প্রতিরোধে নিয়মানুসারে চুন ও লবণ প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • এ মাসের শুরুর দিকের পরিবেশ জীবন্ত মাছ পরিবহণের জন্য সুবিধাজনক। উন্নত ব্রুড মাছ সংগ্রহের এখনই ভাল সময়। হ্যাচারির চাহিদামত উন্নত ব্রুড মাছ এখনই সংগ্রহ করুন।
  • গত বছরে প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি ব্যবহার উপযোগী আছে কিনা পরীক্ষা করে দেখুন। না থাকলে নতুন করে সংগ্রহের ব্যবস্থা করুন।
  • শীত যাই যাই করছে। পুকুরের পানিও নিচের দিকে রয়েছে। প্রয়োজনে পুকুরের একটি নির্দিষ্ট স্থানে গর্ত করে পানির গভীরতা বাড়িয়ে দিন এবং এই স্থানে জলজ আগাছা যেমন কচুরিপানা ইত্যাদি দিয়ে ছায়ার ব্যবস্থা করুন। প্রয়োজনে সেঁচের মাধ্যমে পানি যোগ করুন।
  • এ মাসের শেষের দিকের পরিবেশ জীবন্ত মাছ পরিবহণের জন্য সুবিধাজনক। উন্নত ব্রুড মাছ সংগ্রহের এখনই ভাল সময়। হ্যাচারির চাহিদামত উন্নত ব্রুড মাছ এখনই সংগ্রহ করুন।
  • হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর নিজস্ব না হলে আগামী মওসুমের জন্য লিজ নবায়ন করুন।
  • আগামী মওসুমের জন্য নতুন করে হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর লিজ নিতে চাইলে খোঁজ খবর নিনে লিজ গ্রহণ করুন।
  • যারা ঋণ নিয়ে হ্যাচারি পরিচালনা করতে আগ্রহী তারা সংশ্লিষ্ট অফিসে যোগাযোগ করুন।

 

চৈত্র (মার্চ-এপ্রিল)

  • ব্রুড মাছের পুকুরের যত্ন নিন। নিয়মিত সার ও খাদ্য প্রয়োগ অব্যাহত রাখুন তবে প্রয়োগের হার ধীরে ধীরে বাড়াতে থাকুন। রোগ প্রতিরোধে নিয়মানুসারে চুন ও লবণ প্রয়োগ না করে থাকলে এখনই করুন।
  • জাল টেনে ব্রুডের বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করুন।
  • এ সময় পরিণত রুই জাতীয় মাছের উদরে ডিম বা শুক্রাণু আসতে শুরু করে তাই এ সময় অতিরিক্ত যত্ন নিন।
  • ব্রুড মাছ এখনও সংগ্রহ করে না থাকলে এখনই যত্নের সাথে সংগ্রহ করুন।
  • গত বছরে প্রণোদিত প্রজননে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় হরমোন, হাপা, হরমোন প্রস্তুত ও প্রয়োগের সরঞ্জাম ইত্যাদি এবং রেণু পরিবহণের জন্য পলি ব্যাগ ও অক্সিজেন সিলিন্ডার ইত্যাদি ব্যবহার উপযোগী আছে কিনা পরীক্ষা করে দেখুন। না থাকলে নতুন করে সংগ্রহের ব্যবস্থা এখনই করুন।
  • রেণু ক্রেতার চাহিদার অনুসারে কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে পোনা উৎপাদন শুরু করা যেতে পারে।
  • প্রণোদিত প্রজননের ব্যবহৃত ব্রুড মাছের জন্য প্রজনন পরবর্তী বিশেষ যত্নের ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করুন।
  • হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর নিজস্ব না হলে এবং আগামী মওসুমের জন্য এখনও লিজ নবায়ন না করে থাকলে এমাসেই করুন।
  • আগামী মওসুমের জন্য নতুন করে হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুর লিজ নিতে চাইলে এখনই লিজ গ্রহণ করুন।
  • যারা ঋণ নিয়ে হ্যাচারি পরিচালনা করতে আগ্রহীরা সংশ্লিষ্ট অফিসে এখনও যোগাযোগ না করে থাকলে এখনই করুন এবং প্রয়োজনমত ঋণ গ্রহণ করুন।

 

পুনশ্চ

  • লিজের মাধ্যমে সংগৃহীত হ্যাচারি অবকাঠামো ও পুকুরের লিজের মূল্য যথাসময়ে পরিশোধ করুন।
  • কিস্তিভিত্তিক পরিশোধের শর্তে গৃহীত ঋণ নিয়ে থাকলে নিয়মিত ঋণের কিস্তি পরিশোধ করুন।
  • হ্যাচারি ব্যবস্থাপনার সকল তথ্যাদি ও অর্থনৈতিক হিসাব (আয়-ব্যয়) যথাযথভাবে লিপিবদ্ধ করুন।
  • প্রতি সপ্তাহেই পরবর্তী সপ্তাহের করণীয় বিষয়াদি ধারাবাহিকভাবে লিপিবদ্ধ করুন এবং প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিন।
  • হ্যাচারি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত যে কোন সমস্যায় সঠিক পরামর্শের জন্য অফিস চলাকালীন সময়ে স্থানীয় মৎস্য অফিসের সাথে যোগাযোগ করুন।

 

Visitors' Opinion

লেখক

প্রফেসর, ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী-৬২০৫, বাংলাদেশ। বিস্তারিত ...

Leave a Reply