ক্যাটাগরি: গণ সচেতনতা | প্রক্রিয়াজাতকরণ ও সংরক্ষণ | মান নিয়ন্ত্রণ | মাৎস্য প্রযুক্তি

মাছে ফর্মালিন ব্যবহারের ভয়াবহতা, ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা

কার্যকরী জীবাণুনাশক হিসেবে এবং বিভিন্ন শিল্পে ফর্মালিন একটি বহুল ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থ। সহজ কথায় ফরমালডিহাইডের ৪০% জলীয় দ্রবণের বাণিজ্যিক নামই হচ্ছে ফর্মালিন। স্বচ্ছ, বর্ণহীন, বিশেষ ঝাঁঝালো গন্ধযুক্ত এই রাসায়নিক পদার্থ মাছ ও অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণে ব্যবহৃত হওয়ায় বর্তমানে তা জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। মাছসহ সকল খাদ্যদ্রব্যে এর অপব্যবহারের ক্ষতিকর প্রভাব এবং তা থেকে উত্তরণের নানা উপায় নিয়ে এ লেখায় আলোকপাত করা হয়েছে। ফর্মালিনের ধর্ম তথা বৈশিষ্ট্য:

ফর্মালিন হল ফরমালডিহাইড বা মিথানল (Methanal) গ্যাসের জলীয় দ্রবণ (H-CHO) যাতে সাধারণত ৩৭- ৪০ শতাংশ …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: ইভেন্ট | গণ সচেতনতা

রা.বি.তে মৎস্য সপ্তাহ ২০১০ উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও পোনা অবমুক্তকরণ

চিংড়ী পোনা অবমুক্ত করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া

চিংড়ী পোনা অবমুক্ত করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া

“মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি কর, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত কর” শ্লোগানকে সামনে রেখে ২৭ জুলাই রোজ মঙ্গলবার ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১০ উদযাপন উপলক্ষ্যে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করে। রা.বি. প্রক্টর প্রফেসর ড. চৌধুরী মো: জাকারিয়া, বিভাগীয় শিক্ষকবৃন্দ এবং ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে র‌্যালীটি রাজশাহী …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: খাবার মাৎস্য | গণ সচেতনতা | মাৎস্য বাণিজ্য

দেশী রূপচাঁদা ও বিদেশী পিরানহা মাছের মধ্যে পার্থক্য

পিরানহা

পিরানহা

রূপচাঁদা / রূপচান্দা

রূপচাঁদা / রূপচান্দা (সংরক্ষণকৃত)

দক্ষিণ আমেরিকার স্বাদুপানির রাক্ষুসে মাছ পিরানহা বাংলাদেশে বাহারী মাছ হিসেবে প্রবেশ করলেও পরবর্তীতে ময়মনসিংহের হ্যাচরী মালিক ও মাছচাষীদের হাত ধরে প্রায় সারা দেশের চাষের পুকুরে চলে আসে। আশঙ্কা করা হয় এই মাছ আমাদের মুক্ত জলাশয়ে চলে …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: খাবার মাৎস্য | গণ সচেতনতা | মাৎস্য বাণিজ্য

ফরমালিন বিহীন ও ফরমালিন যুক্ত মাছের পার্থক্য

অন্যান্য যে কোন প্রাণীর মতো মাছও মারা যাওয়ার পর দ্রূত পচতে শুরু করে। পচনের এই হার নির্ভর করে মাছের শরীরস্থ অনুজীবের (মূলত ব্যকটেরিয়া) কর্মশীলতার উপর। মৃত মাছের শরীরের পরিবেশ অনুজীবের জন্য যতটা উপযুক্ত হয় ততটা বেশি কর্মশীলতা এরা প্রদর্শণ করে। সাধারণত কম তাপমাত্রায় এসব অনুজীবের কর্মতৎপরতা হ্রাস পায়। তাই বরফ সংযুক্ত করে মৃত মাছ পরিবহণ ও সংরক্ষণ একটি বহুল ব্যবহৃত পদ্ধতি। এছাড়াও নানাবিধ রাসায়নিক পদার্থের উপস্থিতিতে এসব অনুজীব মারা যায় বা এর কর্ম তৎপরতা লোপ পায়। ফলে এসব রাসায়নিক দ্রবাদি ব্যবহার করেও মৃত মাছ সংরক্ষণ …বিস্তারিত