ক্যাটাগরি: আইন | প্রকাশনা

চিংড়ি চাষ অভিকর আইন, ১৯৯২

চিংড়ি চাষ এলাকার উপকৃত জমির উপর অভিকর আরোপকল্পে প্রণীত আইন৷ যেহেতু চিংড়ি চাষ এলাকার উপকৃত জমির উপর অভিকর আরোপ করা সমীচীন ও প্রয়োজনীয়;

সেহেতু এতদ্‌দ্বারা নিম্নরূপ আইন করা হইল:-

সংক্ষিপ্ত শিরোনামা ও প্রবর্তন ১৷ (১) এই আইন চিংড়ি চাষ অভিকর আইন, ১৯৯২ নামে অভিহিত হইবে৷

(২) সরকার, সরকারী গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা, যে তারিখ নির্ধারণ করিবে সেই তারিখ হইতে এই আইন বলবত্ হইবে৷

সংজ্ঞা ২৷ বিষয় বা প্রসংগের পরিপন্থী কোন কিছু না থাকিলে, এই আইনে,-

(ক) “অভিকর” অর্থ এই আইনের অধীন প্রদেয় অভিকর;

(খ) …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ

প্রোবায়োটিক ব্যবহার করে মাছ ও চিংড়ি চাষ : ব্যবস্থাপনা ও আয়-ব্যয় বিশ্লেষণ

প্রোবায়োটিক ব্যবহার করে উৎপাদিত চিংড়ি

প্রোবায়োটিক ব্যবহার করে উৎপাদিত চিংড়ি

গত পর্বে আমরা মাছ ও চিংড়ি চাষে প্রোবায়োটিক ব্যবহার: পরিচিতি ও প্রয়োগপদ্ধতি সম্পর্কে জেনেছি। এ পর্বে আমরা জানবো প্রোবায়োটিক ব্যবহার করে মাছ ও চিংড়ি চাষের ব্যবস্থাপনা এবং প্রোবায়োটিক ব্যবহার করে ও না করে চিংড়ির তুলনামূলক উৎপাদন (আয়-ব্যয় বিশ্লেষণসহ) বিষয়ক তথ্যাদি। পুকুর প্রস্তুতি মাছ বা চিংড়ি চাষে ভাল উৎপাদন প্রাপ্তির জন্য …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি

রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষ: মজুদ পরবর্তী ব্যবস্থাপনা

মাছের খাবার প্রস্তুত ও প্রয়োগ

মাছের খাবার প্রস্তুত ও প্রয়োগ

রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষ: মজুদপূর্ব ব্যবস্থাপনা” এবং “রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষ: মজুদ ব্যবস্থাপনা” শিরোনামের লেখায় রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষের ক্ষেত্রে পুকুর প্রস্তুতকরণ ও পোনা মজুদ এর উপর বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এ লেখায় রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষের ক্ষেত্রে মজুদ পরবর্তী ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

সম্পূরক খাদ্য প্রয়োগ …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি

বরেন্দ্র অঞ্চলে লাল মাটির পুকুরে রুইজাতীয় মাছের মিশ্রচাষ

বাংলাদেশের কিছু কিছু এলাকার মাটি লাল। এই এলাকাগুলো বরেন্দ্র অঞ্চল নামে পরিচিত। চাঁপাই নবাবগঞ্জ, রাজশাহী, নওগাঁ, জয়পুরহাট, বগুড়া ও অন্যান্য কিছু জেলার এই অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত। এসকল অঞ্চলের মাটিতে জৈব পদার্থের পরিমাণ কম এবং জলাশয়ের পানি অতিরিক্ত ঘোলা হয়ে থাকে। বরেন্দ্র অঞ্চলে মাছ চাষের প্রধান সমস্যাসমূহ হলো-

পানি অতিরিক্ত ঘোলা হবার কারনে সূর্যালোক প্রবেশ বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং পানিতে প্রাথমিক উৎপাদন বাধাপ্রাপ্ত হয়। পানির ক্ষারত্ব কম হওয়ায় মাছসহ অন্যান্য জলজ জীবের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যহত হয়। অতিরিক্ত ঘোলাত্ব মাছের শ্বসনসহ অন্যান্য জৈবিক কার্যকলাপকে বাধাগ্রস্থ করে।

উপরোক্ত সমস্যাসমূহ গুরুত্ব …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: প্রকাশনা | বইপত্র

বই পরিচিতি: মাৎস্য ও মাৎস্যসম্পদ ব্যবস্থাপনা (২য় খণ্ড)

মাৎস্য ও মাৎস্যসম্পদ ব্যবস্থাপনা (২য় খণ্ড) বইটির প্রচ্ছদ

মাৎস্য ও মাৎস্যসম্পদ ব্যবস্থাপনা (২য় খণ্ড) বইটির প্রচ্ছদ

বাংলা একাডেমী ফলিত বিজ্ঞানের যত বই প্রকাশ করেছে তার মধ্যে বিষ্ণু দাশ এর মাৎস্য ও মাৎস্যসম্পদ ব্যবস্থাপনা বইটি অন্যতম। চার খণ্ডে প্রকাশিত এই বই-এ বিস্তারিতভাবে মাছ চাষের নানা দিক নিয়ে অত্যন্ত সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে যা মৎস্যবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী তো বটেই গবেষক, শিক্ষক, মৎস্য …বিস্তারিত