ক্যাটাগরি: অঙ্গসংস্থানবিদ্যা | মাৎস্য জীববিজ্ঞান

জলজ স্তন্যপায়ীদের অভিযোজন: পর্ব-২

প্রিয় পাঠক, আমরা আগের পর্বে জেনেছি অস্থায়ী জলজ স্তন্যপায়ীদের বিভিন্ন অঙ্গসংস্থানিক বৈশিষ্ট্যের পরিবর্তন এবং স্থায়ী স্তন্যপায়ীদের নতুন বৈশিষ্ট্যের আবির্ভাব (Development of New Structure) এবং আদি বৈশিষ্ট্যের অবলুপ্তি (Loss of Original Structure) সম্পর্কে। এ পর্বে থাকলো স্থায়ী স্তন্যপায়ীদের মূল বৈশিষ্ট্যের পরিবর্তন (Modification of Original Structure) সম্পর্কে।

 

মূল বৈশিষ্ট্যের পরিবর্তন (Modification of Original Structure)

 

দেহের আকৃতি (Body Shape):

এদের বেশিভাগের দেহের বহিঃ আকৃতি ফুজিফর্ম (Fusiform) প্রকৃতির অর্থাৎ দেহের মধ্য ভাগের চেয়ে অগ্র ও পশ্চাৎ প্রান্ত ক্রমশ সরু হয়ে থাকে। …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: অঙ্গসংস্থানবিদ্যা | মাৎস্য জীববিজ্ঞান

জলজ স্তন্যপায়ীদের অভিযোজন: পর্ব-১

অধিকাংশ স্তন্যপায়ী স্থলচর হলেও পৃথিবীতে বেশকিছু জলচর স্তন্যপায়ীও দেখতে পাওয়া যায় যারা জলজ স্তন্যপায়ী হিসেবে পরিচিত। এদের মধ্যে অনেকে সম্পূর্ণভাবে জলজ পরিবেশের উপর নির্ভরশীল অর্থাৎ এরা খাদ্য ও আশ্রয়ের জন্য সারা জীবনকাল ব্যাপী জলে অবস্থান করে। যেমন- শুশুক (Dolphin), তিমি (Whale) ইত্যাদি। অন্যদিকে অনেকে আবার আংশিকভাবে জলজ পরিবেশের উপর নির্ভরশীল অর্থাৎ এরা মূলত স্থলে বসবাস করে কিন্তু খাদ্য ও আশ্রয়ের জন্য অস্থায়ীভাবে জলে অবস্থান করে। যেমন- সিল (Seals), ভোঁদড় (Otters), বিবর (Beavers), জলহস্তী (Hippopotamus), প্লাটিপাস (Platypus), ক্যাপিব্যারা (Capybara) ইত্যাদি। জলজ পরিবেশে টিকে থাকার জন্য এদের …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: প্রকাশনা | বইপত্র

বই পরিচিতি: ব্যবহারিক লিমনোলজি ও মিঠাপানির জলজ উদ্ভিদের পরিচিতি

ব্যবহারিক লিমনোলজি ও মিঠাপানির জলজ উদ্ভিদের পরিচিতি বইটির প্রচ্ছদ

ব্যবহারিক লিমনোলজি ও মিঠাপানির জলজ উদ্ভিদের পরিচিতি বইটির প্রচ্ছদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় প্রকাশিত ড. মনিরুজ্জামান খন্দকার (অধ্যাপক, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) এর ব্যবহারিক লিমনোলজি ও মিঠাপানির জলজ উদ্ভিদের পরিচিতি বইটি একদিকে যেমন জীববিজ্ঞানের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও গবেষকের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অন্যদিকে তেমনই সময় উপযোগীও বটে …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: পরিবেশ | মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা | স্বাদুপানি

জলজ পরিবেশ ও মাছের জীববৈচিত্র্য

হাওয়াঞ্চলের জলাভূমি

হাওয়াঞ্চলের জলাভূমি

মাছ শীতল রক্ত বিশিষ্ট জলজ প্রাণী। মাছের উৎপাদন, বৃদ্ধি এবং বেঁচে থাকা সবই নির্ভর করে পানি তথা জলজ পরিবেশের উপর। নদী-নালা, খাল-বিল আর হাওর-বাওড়ে সমৃদ্ধ বাংলাদেশের জলজ পরিবেশ মাছ উৎপাদনের জন্য অত্যন্ত সমৃদ্ধ। বাংলাদেশের স্বাদু পানিতে ২৬০ প্রজাতি এবং লোনা পানিতে রয়েছে ৪৭৫ প্রজাতির মাছ। আর এসব মাছের খাদ্য, বাসস্থান, প্রজনন ও বিচরণ ক্ষেত্রের সাথে যে বিষয়টি ওতপ্রতভাবে জড়িত তা …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: উপকূলীয় ও সামূদ্রিক | মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা | স্বাদুপানি

নদীতে বাড়ছে লবণাক্ততাঃ হুমকির মুখে জলজ জীববৈচিত্র্য

দেশের স্বাদুপানির পাশাপাশি লোনাপানির নদীর লবণাক্ততাও দিন দিন বেড়েই চলেছে। এই বৃদ্ধির পরিমাণ একদিকে যেমন মাত্রাগত অন্যদিকে সময়গত। অর্থাৎ দিন দিন যেমন লবণাক্ততার তীব্রতা বাড়ছে তেমনই বাড়ছে লবণাক্ততার স্থায়ীত্ব। এর ফলশ্রুতিতে একদিকে মানুষের জীবন ও জীবিকায় পড়েছে মারাত্মক প্রভাব অন্যদিকে হুমকির মুখে পড়েছে জলজ জীববৈচিত্র্য। এই লেখায় নদীতে লবণাক্ততা বৃদ্ধির কারণ এবং নানাবিধ প্রভাব এবং করণীয় কি তাই তুলে ধরা হবে।

গত ৯ মে ২০১০ তারিখের প্রথম আলোতে প্রকাশিত “মিঠাপানির মধুমতীতে লবণাক্ততা” শিরোনামের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়- গোপালগঞ্জের স্বাদুপানির নদী মধুমতির পানির লবণাক্ততা …বিস্তারিত