ক্যাটাগরি: মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা

মাছের আবাসস্থল ও প্রজননক্ষেত্র সংরক্ষণ: মৎস্য জীববৈচিত্র্য রক্ষার অন্যতম উপায়

বাংলাদেশে দ্রুতগতিতে মৎস্য জীববৈচিত্র্য হারিয়ে যাওয়ার বিষয়ে মৎস্যবিজ্ঞানীদের মধ্যে আজ আর কোন দ্বিমত নেই। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই মৎস্য জীববৈচিত্র্য রক্ষায় বর্তমানে নানাবিধ পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলা হলেও তার মূল সুরটিই হচ্ছে দেশীয় মাছের আবাসস্থল ও প্রজননক্ষেত্র সংরক্ষণ। কিন্তু বিষয়টি উপস্থাপন করা যতটা সহজ বাস্তবায়ন করা ততোটাই কঠিন। কারণ এর সাথে ব্যক্তি ও গোষ্ঠীর অর্থনৈতিক স্বার্থ এবং অধিক মুনাফার আকাঙ্ক্ষা বিষয়ক নানাবিধ প্রভাবক ওতপ্রোতভাবে জড়িত যা আবাসস্থল ও প্রজননক্ষেত্র পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণের প্রধান অন্তরায়। কিন্তু এ অন্তরায়সমূহ দূর করা সম্ভব না হলে দেশের মৎস্য জীববৈচিত্র্য রক্ষায় …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা | স্বাদুপানি

রাজশাহী এলাকার পদ্মা নদীর মৎস্য জীববৈচিত্র্য: অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যত

রাজশাহী এলাকার (গোদাগাড়ী থেকে চারঘাট পর্যন্ত) পদ্মা নদীতে রেকর্ডকৃত মৎস্য প্রজাতির সংখ্যা ১৪১টি যার মধ্যে ১৩৬ টি দেশী মাছ এবং অবশিষ্ট ৫টি বিদেশী প্রজাতির মাছ। এত স্বল্প পরিসরে এই বিপুল সংখ্যক মৎস্য প্রজাতি প্রাপ্তির বিষয়টি আমাদেরকে উদ্বেলিত করে। বিশেষত যারা মৎস্য বা প্রাণী বৈচিত্র্য বিষয়ে আগ্রহী তাদেরকে আশাবাদীও করে তোলে। তবে আশংকার কথা হচ্ছে উল্লেখিত ১৩৬ প্রজাতির দেশী মাছের মধ্যে প্রায় ষাট প্রজাতির মাছ বর্তমানে দুষ্প্রাপ্য। অর্থাৎ পদ্মার বৈচিত্র্যময় প্রজাতির একটা বড় অংশ আজ হুমকির মুখে। রাজশাহীর গোদাগাড়ী থেকে চারঘাট পর্যন্ত এলাকার পদ্মা নদীতে ১৪১ …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: পরিবেশ | পরিবেশ | মাৎস্য চাষ | মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা | স্বাদুপানি | স্বাদুপানি

প্লাবনভূমিতে মাছ চাষ: দেশীয় মৎস্য জীববৈচিত্র্যের কফিনে ঠোকা শেষ পেরেক

যে ভূমি বছরে ৩-৪ মাস বন্যার প্লাবিত জলে ডুবে থাকে সে ভূমিকে সাধারণভাবে প্লাবনভূমি বলা হয়ে থাকে। হিমালয়ের ভাটিতে অবস্থিত এই সমতল ভূমির এটিই স্বাভাবিক বৈশিষ্ট্য যে প্রতি বর্ষায় উজানের বন্যার পানি ভাটির উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বঙ্গোপসাগরে গিয়ে পড়ে। অল্প সময়ে অধিক পরিমাণ পানির প্রবাহ কেবলমাত্র নদীর মাধ্যমে সম্পন্ন হওয়া সম্ভব হয় না বলেই অতিরিক্ত পানি নদী উপচে সমতল জমিতে প্রবেশ করে তাকে জলমগ্ন করে তোলে। এভাবে কয়েক মাস চলার পর বৃষ্টির পরিমাণ কমে এলে ভূমি থেকে পানি নেমে যেতে থাকে এবং একটা সময় …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা

বাংলাদেশের মৎস্য বৈচিত্র্য হ্রাসের কারণ

বর্তমানে বিল, হ্রদ, হাওড়, প্লাবনভূমি ও নদীর মত উন্মুক্ত জলাশয়ে দেশী মাছের প্রজাতির সংখ্যা ক্রমশ কমতে থাকলেও বিদেশী প্রজাতির সংখ্যা বিপদজনক ভাবে দ্রুত বাড়ছে যা দেশের মৎস্য বৈচিত্র্যের জন্য মোটেও কোন আশাপ্রদ খবর নয়। সময় নষ্ট না করে এখনই প্রয়োজন বাংলাদেশের মৎস্য বৈচিত্র্য হ্রাসের প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করা এবং ইতোমধ্যে বাংলাদেশের মৎস্য বৈচিত্র্য হ্রাসের প্রেক্ষিতে যেসব কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে তা মাঠ পর্যায়ে যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা এবং আরও যেসব কার্যক্রম গ্রহণ করা প্রয়োজন তা খুঁজে বেড় করে দ্রুত বাস্তবায়ন করা। এ লেখায় বাংলাদেশের মৎস্য …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাছ | মাৎস্য জীববৈচিত্র্য | মাৎস্য ব্যবস্থাপনা | মাৎস্য সম্পদ

বাংলাদেশের মৎস্য বৈচিত্র্য: অতীত ও বর্তমান

চিত্র-১: আইইউসিএন বাংলাদেশ (২০০০) অনুসারে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ জলাশয়ের (স্বাদুপানি ও মোহনা অঞ্চলের) মৎস্য প্রজাতির বর্তমান অবস্থা

চিত্র-১: আইইউসিএন বাংলাদেশ (২০০০) অনুসারে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ জলাশয়ের (স্বাদুপানি ও মোহনা অঞ্চলের) মৎস্য প্রজাতির বর্তমান অবস্থা

মাছে-ভাতে বাঙ্গালীর এই দেশে মাছ দেশীয় সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যেরই অংশ। বাংলাদেশের জলাশয়ে পানি আছে আর মাছ নেই এমনটি নিকট অতীতে যেমন কেউ দেখেনি তেমনই বর্তমানেও কেউ ভাবে না। কিন্তু এর ভবিষ্যৎ নিয়ে মৎস্য …বিস্তারিত