ক্যাটাগরি: নানাবিধ

বায়োফ্লক পদ্ধতি মাছ চাষের নতুন দিগন্ত

বায়োফ্লক ট্যাঙ্ক

বায়োফ্লক ট্যাঙ্ক

পৃথিবীর জনসংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই বাড়তি জনসংখ্যার খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য খাদ্য উৎপাদনকারী খাতে (যেমন- মৎস্যচাষ) সম্প্রসারণ প্রয়োজন। উৎপাদনশীলতা, সঠিক গুণাগুণ, লাগসই প্রযুক্তির ব্যবহার, বায়োসিকিউরিটি নিশ্চিতকরণ এবং বাজারের চাহিদা মত মাছ সরবরাহ সহ সকল ক্ষেত্রে দক্ষতার সাথে প্রযুক্তির ব্যবহার সুনিশ্চিত করণের প্রয়োজনে মাছ চাষ প্রতিনিয়ত প্রতিযোগিতার সম্মুখ হচ্ছে। তাছাড়া, পরিবেশ এবং প্রাকৃতিক সম্পদের সংরক্ষণ নিশ্চিত করণের জন্য এই সেক্টরের সম্প্রসারণ টেকসই হতে হবে। টেকসই একোয়াকালচারের প্রাথমিক লক্ষ্য হোল প্রাকৃতিক সম্পদ …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি

আমুর কার্প: মাছচাষের সম্ভাবনাময় এক নতুন জাত

Amur, Cyprinus carpio haematopterus

Amur, Cyprinus carpio haematopterus

বিদেশী মাছ হিসেবে কমন কার্প (আমেরিকান রুই) এর বিভিন্ন জাত (স্কেল কার্প, লেদার কার্প, মিরর কার্প, হাঙ্গেরি কার্প) মৎস্য-প্রেমীদের কাছে আজ সুপরিচিত। সুস্বাদু হওয়ায় এর জনপ্রিয়তাও কম নয়। তবে এর অসুবিধে হল- এরা দ্রুত যৌন পরিপক্বতা পায় (ছয় মাসের কম সময়েই ডিম ধারণ করে), বাজার-যোগ্য আকার অর্জন করার আগেই মজুদ পুকুরে ডিম ছেড়ে ফেলার ফলে এর মজুদ ঘনত্ব বেড়ে যায় ফলে খাদ্য ও বাসস্থানের অভাব হয়। যার ফলশ্রুতিতে সার্বিকভাবে …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: উপকূলীয় ও সামূদ্রিক | মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি

বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে গলদা চাষের সম্ভাবনা

সহলেখক: মুহাম্মদ জাকির হোসেন, এ্যাকুয়াকালচার ফর ইনকাম এন্ড নিউট্রিশন প্রকল্প, ওয়ার্ল্ডফিস-বাংলাদেশ, বরিশাল

মিঠা পানির গলদা (Macrobrachium rosenbergii)

মিঠা পানির গলদা (Macrobrachium rosenbergii)

ভূমিকা: বাংলাদেশের মৎস্য সম্পদে মিঠা পানির গলদা (Macrobrachium rosenbergii) গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে আছে। বাগদার পাশাপাশি গলদাও রফতানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। এর মাধ্যমে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের পাশাপাশি দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দরিদ্রতা দূরীকরণে গলদা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। প্রচুর সম্ভাবনা থাকার পরেও কারিগরি জ্ঞান ও দক্ষতার অভাবে দেশের …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি | হ্যাচারি

মাছচাষের পুকুরের শিকারি ও অনাকাঙ্ক্ষিত মাছ নিয়ন্ত্রণ: পর্ব-২

প্রিয় পাঠক, মাছচাষের পুকুরের শিকারি ও অনাকাঙ্ক্ষিত মাছ নিয়ন্ত্রণ: পর্ব-১ এ আঁতুড় ও অন্যান্য পুকুরের শিকারি ও অনাকাঙ্ক্ষিত মাছের তালিকা এবং তা নিয়ন্ত্রণের অন্যতম পদ্ধতি পানি অপসারণ সম্পর্কে লিখেছিলাম। শিকারি ও অনাকাঙ্ক্ষিত মাছ নিয়ন্ত্রণের অন্যান্য পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হল এ পর্বে।

 

বারবার জাল টানা:

পদ্ধতি:

জলাশয়ের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত পর্যন্ত ঘন ফাঁসের বেড় জাল পুকুরের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত পর্যন্ত বারবার টেনে অধিকাংশ মাছ ধরে ফেলা যায় যদিও সব মাছ ধরার নিশ্চয়তা পাওয়া যায় না।

সাবধানতা:

জাল টানার সময় লক্ষ রাখতে হবে যাতে করে জালের উভয় প্রান্ত দিয়ে মাছ বের হয়ে …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মাৎস্য চাষ | স্বাদুপানি | হ্যাচারি

মাছচাষের পুকুরের শিকারি ও অনাকাঙ্ক্ষিত মাছ নিয়ন্ত্রণ: পর্ব-১

মাছচাষের বিভিন্ন ধরণের পুকুরের মধ্যে আঁতুড় পুকুরে (Nursery pond) শিকারি ও অনাকাঙ্খিত মাছের উপস্থিতি মারাত্মক ক্ষতিকর বলে বিবেচিত হয়ে থাকে কারণ শিকারি (Predatory) মাছ ডিমপোনা, রেণুপোনা, ধানীপোনা ও আঙ্গুলিপোনাকে সহজেই শিকার করে খেয়ে ফেলতে পারে আবার এরা চাষের মাছের সাথে স্থান, খাবার ও অক্সিজেন ব্যবহারের মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়েও প্রতিযোগিতা করে থাকে। অন্যদিকে অনাকাঙ্ক্ষিত মাছ (Unwanted fish) বা অবাঞ্ছিত মাছ (Undesirable fish) বা আমাছা মাছ (Weed fish) চাষের মাছকে শিকার করে না খেলেও তাদের সাথে স্থান, খাবার ও অক্সিজেন ব্যবহারের মত rপ্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক বিষয়ে প্রতিযোগিতা করে থাকে। উভয় প্রকৃতির মাছের উপস্থিতিই চাষের পুকুরে মাছের কাঙ্ক্ষিত বৃদ্ধি তথা উৎপাদনের অন্যতম অন্তরায় হয়ে দেখা …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: প্রকাশনা | বইপত্র

বই পরিচিতি: একোয়াকালচার

“একোয়াকালচার” বইটির প্রচ্ছদ

“একোয়াকালচার” বইটির প্রচ্ছদ

বাংলাদেশের মাছ চাষিদের জন্য উৎসর্গীকৃত “একোয়াকালচার” শিরোনামের বইটির লেখক বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের তৎকালীন একোয়াকালচার ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রফেসর ড. আনোয়ারুল ইসলাম। বইটি মাৎস্যবিজ্ঞানের স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর শ্রেণীর পাঠ্যক্রম অনুসারে প্রণয়ন করা হলেও একোয়াকালচারের বিভিন্ন পদ্ধতি সম্পর্কে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাম্প্রতিক অগ্রগতিসহ বিস্তৃতভাবে আলোচনা করা হয়েছে যা মাৎস্যবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও গবেষকের কাঙ্ক্ষিত চাহিদার সিংহভাগই পূরণে সক্ষম হবে তা নিশ্চিত করেই বলা যায়।

বইটির প্রথম …বিস্তারিত