ক্যাটাগরি: নানাবিধ | বিশ্বাস করুন আর নাই করুন!

উষ্ণ রক্ত বিশিষ্ট মাছ!

জীববিজ্ঞানে উষ্ণ রক্ত বিশিষ্ট বলতে ঠিক যা বোঝায় সেরকম উষ্ণ রক্ত বিশিষ্ট মাছ পৃথিবীতে নেই। তবে বেশ কিছু মাছ রয়েছে যারা দেহের অভ্যন্তরের একটি সুর্নিদিষ্ট অংশ তাপ উৎপাদন করতে পারে আবার অনেক মাছ দেহস্থ তাপ যাতে না হারায় সে ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করতে পারে। ফলশ্রুতিতে অন্যান্য শীতল রক্তবিশিষ্ট প্রাণীর মত এদের দেহের তাপ দ্রুত পরিবেশের পরিবর্তিত তাপমাত্রার সাথে পরিবর্তিত হয়ে যায় না।

কিছু টুনা (Tuna), হাঙ্গর (Mackerel Sharks), সোর্ড ফিশ (Sword fish) রয়েছে যারা উষ্ণ রক্ত বিশিষ্ট প্রাণীর মতই দেহস্থ তাপ কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রন করতে পারে।

নীল পাখনা টুনা মাছ দেহের অভ্যন্তরে অতিরিক্ত তাপ উৎপাদনের জন্য অন্যান্য টুনা মাছের চেয়ে বেশি খাবার গ্রহণ করে থাকে। বৃহদাকার হলুদ পাখনা টুনা মাছ দীর্ঘ ও দ্রুতগতির সাঁতারের সময় কঠিন পরিশ্রমের মাধ্যমে দেহের অভ্যন্তরে তাপ উৎপন্ন করতে পারে। আবার দেহস্থ তাপ যাতে সহজে হারিয়ে না যায় তার জন্য বিশেষ কৌশল গ্রহণ করে থাকে।

সোর্ড ফিশে এক ধরণের কলা বা টিস্যু রয়েছে যেগুলো তাপ উৎপাদন করতে পারে। এই কলা হিটার হিসেবে কাজ করে। এদের রক্ত চোখ ও মস্তিস্কে যাবার পথে এই হিটার তুল্য কলা রক্তকে উষ্ণ করে থাকে।

নতুন পাঠকদের জন্য জানিয়ে দেই উষ্ণ ও শীতল রক্ত বিশিষ্ট প্রাণী বলতে আসলে কি বোঝায়। যেসব প্রাণীরা দেহের তাপমাত্রা আভ্যন্তরীণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে ফলে এদের দেহের তাপমাত্রা পরিবেশের তাপমাত্রা পরিবর্তনের সাথে পরিবর্তিত না হয়ে একটি সুনির্দিষ্ট মাত্রায় অবস্থান করে তাদেরকে উষ্ণ রক্ত বিশিষ্ট প্রাণী বলে। যেমন- মানুষ, বাঘ, পাখি ইত্যাদি। অন্যদিকে যেসব প্রাণীরা দেহের তাপমাত্রা আভ্যন্তরীণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না ফলে দেহের তাপমাত্রা পরিবেশের তাপমাত্রা পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবর্তিত হয় অর্থাৎ পরিবেশের তাপমাত্রা বাড়লে এদের দেহের তাপমাত্রা বাড়ে আবার পরিবেশের তাপমাত্রা কমলে এদের দেহের তাপমাত্রা কমে তাদেরকে শীতল রক্ত বিশিষ্ট প্রাণী বলে। যেমন- মাছ, ব্যাঙ, সরীসৃপ ইত্যাদি। বিস্তারিত এখানে

তথ্যসূত্রঃ


Visited 106 times, 1 visits today | Have any fisheries relevant question? Ask here

Visitors' Opinion

লেখক

প্রফেসর, ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী-৬২০৫, বাংলাদেশ। বিস্তারিত ...

Leave a Reply