ক্যাটাগরি: কবিতা | নানাবিধ | প্রতিষ্ঠান | মাৎস্য সম্পদ | শিক্ষা

ফিশারীজ বিভাগের আত্মকথা

আহা মজা! কি দারুণ! লাগছে আমার আজ
দেখছি গায়ে জন্মদিনের নতুন নতুন সাজ।
চারপাশে মোর বাজছে শুধু হাজার সুরের বীন
সত্যিই কি? আজকে আমার শুভ জন্মদিন?

ব্যস্ত সকল মানুষগুলো ছুটছে নানান কাজে
তারই ফাঁকে সবাই যে আজ মিলছে সবার মাঝে।
স্মৃতির পাতায় হাজার ছবি, হরেক রকম কথা
এসো জানাই সবাইকে আজ আমার আত্মকথা।

জন্ম আমার হয়েছিল বছর দশেক আগে
২০০০ সালে সে এক নতুন শতক প্রাতে।
তৃতীয় বিজ্ঞান ভবনের চতুর্থ তলায়
সকলে মোরে বরণ করে বসাল সেথায়।

নতুন শতক, নতুন দ্বার, নিত্য আশা প্রাণে
জন্ম নেবে শিক্ষার আলো আমার আঙ্গিনাতে।

এরই মাঝে আসল এক মজার রকম ক্লেশ
উপরওয়ালা দিয়েছে আমায় স্থানান্তরের নির্দেশ।
গুটি গুটি পায়ে চলি, বছর পাঁচেক হবে
পাড়ি দিলাম নতুন বাড়ি কৃষি অনুষদে।

জায়গা নতুন, রাস্তা নতুন, নতুন রকম সাজ
মানিয়ে নিতে কষ্ট হলেও থামেনিতো কাজ।
এতক্ষণ তো জানালাম মোর জন্ম ইতিকথা
বলি এখন একে একে পাওয়া না পাওয়ার ব্যাথা।

একটু একটু করে আজি এসেছি এতদূর
সান্তানেরে শিখিয়েছি, পেরেছি যতদূর।
দিয়েছি তাদের এম.ফিল, পি.এইচ.ডি, অনার্স
এছাড়াও কতজন পেয়েছে মাষ্টার্স।

গবেষণা, উন্নয়ন আমার জীবনের লক্ষ্য
সন্তান আর সহোদর সব এ কাজেও পক্ক।
বায়োলজি আর একুয়াকালচার বহুমুখী সব কাজ
ধানক্ষেতেও মাছ কিংবা গলদা চিংড়ির চাষ।

সারা বিশ্ব গেঁথে আছে একটি জালের সাথে
সেইখানেতেও নই পিছিয়ে ওয়েবসাইট আছে।
আমার যত তথ্য আছে জানতে যদি চাও
সেখান থেকে ইচ্ছে মতো জেনে তুমি নাও।

এ ছাড়াও আছে আমার বিডিফিশ সাইট
মৎস্য তথ্য শেয়ার করার তোমারও আছে রাইট।
ইংরেজির পাশে সেথায় বাংলায় পাবে তথ্য
মাতৃভাষায় জ্ঞানার্জনে হতে পারো মত্ত্ব।

অস্তিত্ব বজায় রাখি এই ধরনীতে
পালন করে বিশেষ দিবস বিভিন্ন র‌য্যালীতে।
এত কাজের মাঝেও আমি পাই পরম তৃপ্তি
সমন্বয় করে আমার ফিশারীজ সমিতি।

সন্তান আমি তৈরী করি দেশ গড়ার কাজে
জ্ঞানের আলো জ্বালিয়ে দিয়ে তাদের হৃদয় মাঝে।
করবে তারা উন্নয়ন দেশের মৎস্য খাতে
বিলিয়ে দেবে নিজের মেধা দেশ গড়ার কাজে।

জ্ঞানী-গুণী সুধীজন আছেন যত ভাই
সবার কাছেই একটি কথাই বলতে আমি চাই।
দশ বছরের অর্জন আমার কমতো কিছু নয়
বিশ্বমানের হবো আমি জেনো সে নিঃশ্চয়।

পুনশ্চঃ কবিতাটি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারীজ বিভাগের দশ বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষ্যে প্রকাশিত স্মরণিকায় প্রথম প্রকাশিত হয়।


Visited 108 times, 1 visits today | Have any fisheries relevant question? Ask here

Visitors' Opinion

লেখক

শিক্ষার্থী, ফিশারীজ বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। বিস্তারিত

Leave a Reply