ক্যাটাগরি: গণ সচেতনতা | প্রক্রিয়াজাতকরণ ও সংরক্ষণ | মান নিয়ন্ত্রণ | মাৎস্য প্রযুক্তি

মাছে ফর্মালিন ব্যবহারের ভয়াবহতা, ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা

কার্যকরী জীবাণুনাশক হিসেবে এবং বিভিন্ন শিল্পে ফর্মালিন একটি বহুল ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থ। সহজ কথায় ফরমালডিহাইডের ৪০% জলীয় দ্রবণের বাণিজ্যিক নামই হচ্ছে ফর্মালিন। স্বচ্ছ, বর্ণহীন, বিশেষ ঝাঁঝালো গন্ধযুক্ত এই রাসায়নিক পদার্থ মাছ ও অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণে ব্যবহৃত হওয়ায় বর্তমানে তা জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। মাছসহ সকল খাদ্যদ্রব্যে এর অপব্যবহারের ক্ষতিকর প্রভাব এবং তা থেকে উত্তরণের নানা উপায় নিয়ে এ লেখায় আলোকপাত করা হয়েছে। ফর্মালিনের ধর্ম তথা বৈশিষ্ট্য:

ফর্মালিন হল ফরমালডিহাইড বা মিথানল (Methanal) গ্যাসের জলীয় দ্রবণ (H-CHO) যাতে সাধারণত ৩৭- ৪০ শতাংশ …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মান নিয়ন্ত্রণ | মাৎস্য প্রযুক্তি

মাছ ও ফরমালিন: প্রেক্ষিত নিরাপদ খাদ্য

মাছে ভাতে বাঙ্গালি। শুধু বাংলাদেশই নয় সারা বিশ্বে খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে কথা বলতে গেলে মাছের নাম সবার আগে এসে যায়। খাদ্য হিসেবে মাছ সারা দুনিয়াতেই জনপ্রিয়। প্রাণিজ আমিষ এর চাহিদা মেটাতে আর অপুষ্টিজনিত সমস্যা দূর করতে খাদ্য হিসেবে গুনগুন বিচারে মাছ সবার উপরে।

ফুড সেফটি বা নিরাপদ খাদ্য কথাটা আমাদের দেশের জন্যে খুব একটা আলোচিত বিষয় নয়। নদী নালার এ দেশে অতি পচনশীল হয়া সত্বেও মাছ নষ্ট হবার মত সময় পায় না। তার আগেই আমরা মাছকে খাবারের উপযোগী করে ফেলি। তার পরেও বাজার জাত করার …বিস্তারিত

ক্যাটাগরি: মান নিয়ন্ত্রণ | মাৎস্য প্রযুক্তি

ক্রেতা অধিকার সংরক্ষণের প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের চিংড়ি পণ্যের মান উন্নয়ন

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চিংড়ি শিল্প একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। ২০০৭-০৮ অর্থবছরে চিংড়ির মোট উৎপাদন ছিল ২২৩,০৯৫ মে. টন যার মধ্যে ৪৯৯০৭ মে. টন চিংড়ি রপ্তানী করে ২৮৬৩.৯২ কোটি টাকার সমপরিমাণের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয়েছে (মৎস্য অধিদপ্তর, ২০০৯)। বর্তমানে চিংড়ি কারখানায় চিংড়ি ও মত্স্যজাত পন্যের গুণগত মান উন্নয়নের জন্য হ্যাসাপ নীতিমালা বাস্তবায়ন করা হয়েছে । মাঠ পর্যায়েও হ্যাসাপ নীতিমালার বাস্তবায়ন অপরিহার্য। কারণ চুড়ান্ত পর্যায়ে চিংড়ির মান রক্ষার প্রথম পদক্ষেপই হল খামার থেকেই এর পরিচর্যা ও পরিবহনের উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করা। তাই গুণগতমান নিয়ন্ত্রণের জন্য আহরণের …বিস্তারিত